অনেকদিন হয়ে গেল লকডাউন-এর পালা কাটিয়ে আনলক-এর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে ভারতে। কিন্তু, মঙ্গলবার ভারতীয় রেল-এর কথায় পরিষ্কার হয়ে গেল, খুব তাড়াতাড়িই মধ্যে দেশে নিয়মিত যাত্রীবাহী ট্রেন চালু হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। এদিন রেলের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, 'পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত' পেল পরিষেবা স্থগিতই থাকবে। এর আগের নির্দেশে ১২ অগাস্ট পর্যন্ত রেল চলাচল স্থগিত রাখা হয়েছিল।

নিয়মিত যাত্রীবাহী ট্রেন এখনও চালু হওয়ার কোনও সম্ভাবনা না দেখা গেলেও, লকডাউনের পর দৈনিক যে ২৩০ টি বিশেষ ট্রেন চালু করা হয়েছিল, সেই ট্রেনগুলি এখনও চলবে বলেই জানানো হয়েছে। মুম্বইয়-এ রাজ্য সরকারের অনুমোদনের ভিত্তিতে সীমিত সংখ্যায় চলা শুরু হয়েছে কিছু লোকাল ট্রেন। সেগুলিও চলবে জানিয়েছে ভারতীয় রেল। রেল মন্ত্রক আরও জানিয়েছে, এই বিশেষ ট্রেনগুলি-তে কেমন লোক হচ্ছে, তা নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। প্রয়োজন হলে অতিরিক্ত বিশেষ ট্রেনও চালানো হতে পারে।

তবে লকডাউনের আগে অন্যান্য নিয়মিত যে যাত্রীবাহী ট্রেন এবং শহরতলিতে যে ট্রেনগুলি চলত, সেই পরিষেবা আপাতত আরও বেশ কয়েকদিন স্থগিত থাকবে। করোনাভাইরাস মহামারীটির জেরে দেশব্যপী লকডাউন জারি বওয়ার পর ২৫ মার্চ থেকে সমস্ত নিয়মিত ট্রেন পরিষেবা বাতিল করা হয়েছিল। ১৫ এপ্রিল থেকে আইআরসিটিসি এই নিয়মিত ট্রেনগুলির অগ্রিম বুকিং-ও স্থগিত করে দিয়েছে। তারপর প্রথমে রাজধানীর মতো ৩০টি এসি ট্রেন দিয়ে ফের শুরু হয়েছিল যাত্রী পরিষেবা। ১ জুন থেকে আরও ২০০ টি ট্রেন চালু করেছে আইআরসিটিসি।