ভারতকে প্লাস্টিক কার্ড মুক্ত করতে চাইছে এসবিআই। অর্থাৎ ভারতীয়দের যাতে আর পকেটে করে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড না বহন করতে হয়, সেই পথে হাঁটতে চাইছে এই রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্ক। ক্যাশ-এর পর কার্ডও বাতিল করে আরও ডিজিটাল সমাধানের পথে হাঁটতে চাইছে তারা। বার্ষিক ফাইব্যাকে এই কথাই জানিয়েছেন স্টেট ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান রজনীশ কুমার।

দেশের জনসংখ্যার প্রায় এক পঞ্চমাংশই এই ব্যাঙ্কের গ্রাহক। তাদের বেশিরভাগই ডেবিট কার্ডের উপর নির্ভরশীল। বর্তমানে সারা দেশে প্রায় ৯০ কোটি মানুষ ডেবিট কার্জ ব্যবহার করেন। আর ৩ কোটির হাতে রয়েছে ক্রেডিট কার্ড। কিন্তু এসবিআই এই কার্ড ব্যবহারের অভ্যাসটাই পাল্টে দিতে চাইছে।

প্লাস্টিক কার্ডের বদলে তাদের সমাধান 'ইয়োনো'-র মতো ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম। এই প্ল্যাটফর্মের স্বয়ংক্রিয় টেলার যন্ত্রের মাধ্যমে সহজেই কার্ড ছাড়াই গ্রাহক টাকা তুলতে পারবেন। এছাড়া দোকান-বাজারে কেনাকাটা করে এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমেই দাম মেটানোও যাবে। এর পাশাপাশি কিছু কিছু পণ্যের ক্ষেত্রে ইয়োনো প্ল্যাটফর্ম ক্রেডিটও দিয়ে থাকেয তাই ডেবিট কার্জের পাশাপাশি অকেজো হয়ে যাবে ক্রেডিট কার্ডও।

আরও পড়ুন -অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে ফের কমল রেপো রেট, গৃহঋণের কিস্তি আরও কমল

আরও পড়ুন - মধ্যবিত্তের জন্য দুঃসংবাদ, ফিক্সড ডিপোজিটে সুদের হার কমাল স্টেট ব্যাঙ্ক

রজনীশ কুমার জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই সারা দেশে ৬৮০০০টি 'ইয়োনো ক্যাশপয়েন্ট' গড়ে তোলা হয়েছে। এরপর আগামী ১৮ মাসের মধ্যে সেই সংখ্যাকে ১০ লক্ষেরও বেশিতে নিয়ে যাওয়া হবে। এইভাবে পরের পাঁচ বছরে আস্তে আস্তে প্লাস্টিক কার্ডের ব্যবহার ভারত থেকে মুছে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন এসবিআই-এর চেয়ারম্যান। 'ইয়োনো'-র মতো প্ল্যাটফর্মের পাশাপাশি কিউআর কোডের ব্যবহারও অল্প খরছে ভাল ডিজিটাল পেমেন্ট বিকল্প হিসেবে মন্তব্য করেছেন তিনি।