পৃথিবীতে খুব কম দেশই রয়েছে যাদের ২টি নাম রয়েছে। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দেশ ইন্ডিয়া হিসাবে পরিচিত হলেও স্থানীয়ভাবে ভারত নামটিই জনপ্রিয়। এবার দেশের ২টি নামের পরিবর্তে একটি নামই বেছে নেওয়া হোক, এই নিয়ে সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে একটি পিটিশন দায়ের করা হয়েছে। সংবিধান সংশোধন করে সরকারি ভাবে দেশের নাম ইন্ডিয়ার পরিবর্তে ফের ভারত বলে ঘোষণা করুক কেন্দ্র। সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করা পিটিশনে এই আবেদন করা হয়েছে। কিন্তু শুনানির শুরুতেই ধাক্কা খেল নাম পরিবর্তনের এই প্রচেষ্টা। মঙ্গলবার এই আবেদনের শুনানির কথা থাকলেও তা স্থগিত করে দেয় দেশের শীর্ষ আদালত। 

আদালতে দেশের নাম পরিবর্তনের আবেদনের শুনানির কথা ছিল সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদের এজলাসে। কিন্তু তিনি ছুটিতে থাকায় শুনানি স্থগিত করা হয়েছে। এমনকি পরবর্তী শুনানি কবে হবে সেই বিষয়েও সুপ্রিম কোর্টের তরফে কিছু জানান হয়নি। 

 

 

১৯৪৮ সালে স্বাধীনতার পর কনস্টিটিউয়েন্ট অ্যাসেম্বলি দুটি নাম বেছে নিয়েছিল ইন্ডিয়া ও ভারত ৷ জানা যায় সেই সময় বহু সদস্য প্রাথমিকভাবে ভারত নামটি বেছে নিয়েছিল ৷ ভারক বা হিন্দুস্থান করার পক্ষে জোরদার দাবি উঠেছিল। নিজের পেশকরা পিটিশনে সেই বিষয়টি উল্লেখ করেছেন পিটিশনার। পিটিশনে সওয়াল করা হয়েছে পুরানো নামে ফিরে গেলে দেশের নাগরিকরা ঔপনিবেশক অতীতের গ্লানি কাটিয়ে নিজেদের জাতীয় পরিচয়ে গর্ব বোধ করতে পারবেন। 

ছবিতে দেখুন: ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই আছড়ে পড়তে চলেছে 'নিসর্গ', মুম্বইতে জারি হয়ে গেল লাল সতর্কতা

 পিটিশনারের যুক্তি, ভারতীয় ঐতিহ্যের সঙ্গে তাল রেখে যখন দেশের নানা শহরের নাম বদলানো হচ্ছে, তখন আসল, প্রকৃত নামে দেশকে স্বীকৃতি দেওয়ার উপযুক্ত সময় এটাই। সংবিধানের ১ নম্বর অনুচ্ছেদ সংশোধনের উদ্দেশ্যই ছিল দেশবাসী যাতে ঔপনিবেশিক অতীতকে পিছনে ফেলে এগিয়ে যেতে পারে, তা সুনিশ্চিত করা। ইংরাজি নামটা বাদ দেওয়া প্রতীকী হলেও আমাদের জাতীয় পরিচয় সম্পর্কে শ্রদ্ধাবোধ, গর্ব তৈরি হবে আগামী প্রজন্মের মধ্যে। ইন্ডিয়া নামটা বাদ দিয়ে ভারত করা হলে আমাদের পূর্বসূরীরা যে কঠিন লড়াইয়ের পথে স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছিলেন, তার প্রতি সুবিচার হবে।

আরও পড়ুন: ২ লক্ষের দোড়গোড়ায় দেশের করোনা আক্রান্ত, পরপর ৩ দিন দৈনিক সংক্রমণ ৮ হাজার ছাড়াল

দিল্লির জনৈক আইনজীবীর দায়ের করা পিটিশনটি গত শুক্রবারই প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদের বেঞ্চে শুনানির জন্য নথিভুক্ত করা হয়। কিন্তু তিনি ছুটিতে থাকায় মঙ্গলবার শুনানির দিন ধার্য হয়েছিল। এদিনও অবশ্য বোবদে উপস্থিত না থাকায় পিটিশনের শুনানি হয়নি।

জানা যায়, এদেশের ভারত নামের উৎপত্তি চন্দ্রবংশীয় পৌরাণিক রাজা ভরতের নামানুসারে। কথিত আছে এই অঞ্চলটি রাজা ভরতকে দান করা হয়েছিল বলে এর নাম ভারতবর্ষ। আর ইংরেজি নাম ইন্ডিয়া শব্দটি এসেছে সিন্ধু নদের আদি ফার্সি নাম হিন্দু থেকে। এছাড়াও প্রাচীনকালে গ্রিকরা ভারতীয়দের ইন্দোই বা ইন্দাস নামে অভিহিত করতেন। ইন্ডিয়া ভারতের ইংরেজি নাম, খ্রিস্টপূর্ব ৫ম শতকের সময় থেকে গ্রিক শব্দ ইন্দাই থেকে উদ্ভূত হয়ে ল্যাটিন, পার্সিয়ান ভাষার মধ্য দিয়ে বিকাশ লাভ করে ইন্ডিয়া হয়েছে। ইন্ডিয়া বলতে ইন্দাস রিভার (সিন্ধু নদ)-এর তীরবর্তী বলে নির্দেশ করা হত। ১৭ শতক থেকে এই নামেই  বিশ্বের দরবারে পরিচিত হয়ে এসছে ভারত ।