কংগ্রেস নেতা তথা জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী গোলাম নবি আজাদ এবং কাশ্মীরের কংগ্রেস নেতা গোলাম আহমেদ মীরকে বৃহস্পতিবার আটকে দেওয়া হয় শ্রীনগর বিমানবন্দরে। আর এরপরই সিপিআই(এম)-এর সাধারাণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরিকে আটকে দেওয়া হল শ্রীনগর বিমানবন্দরে। 

শুক্রবার সিপিআই(এম)-এর সাধারাণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির সঙ্গে শ্রীনগরে গিয়েছিলেন তাঁর সিপিআই সহকর্মী ডি রাজা। সূত্রের খবর শুক্রবার সকালে শ্রীনগরে পৌঁছানোর পরই বিমানবন্দরে তাঁদের আটকে দেওয়া হয়, এবং জম্মু শহরে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। সূত্রের খবর, এদিন বাম কর্মীরা শ্রীনগরে গিয়েছিলেন তাঁদের দলীয় কর্মীদের সঙ্গে দেখা করার জন্য।

৩৭০ ধারা রদের জের, ভারতীয় সিনেমা,চ্যানেল বয়কট পাকিস্তানের

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া টেলিফোনিক সাক্ষাতকারে ইয়েচুরি জানিয়েছেন, শ্রীনগরে প্রবেশের ওপর জারি হওয়া নিষেধাজ্ঞা সম্বলিত আইনি নথি তাঁদের দেখানে হয়েছে। কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে সেখানকার নিরাপত্তা বজায় রাখার স্বার্থেই এই নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু তাও তাঁদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করছেন বলেও জানিয়েছেন সীতারাম ইয়েচুরি।

কাশ্মীরে প্রবেশে বাধা, শ্রীনগরে আটকে দেওয়া হল গুলাম নবি আজাদ-সহ কংগ্রেস নেতৃত্বকে

প্রসঙ্গত,  রাজ্যপাল সত্য পাল মালিক-কে শ্রীনগরে যাওয়ার বিষয়টি জানিয়ে আগেই চিঠি দিয়েছিলেন সীতারাম ইয়েচুরি। চিঠিতে তাঁকে অনুরোধও করেছিলেন যে শ্রীনগরে তাঁদের প্রবেশের অনুমতি যেন দেওয়া হয়। কিন্তু তাতেও যে বিশেষ কোনও লাভ হয়নি তা প্রমাণিত হল এই ঘটনায়।