মঙ্গলবার, কেরলে আরও ছয়টি করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল ইতিবাচক এল। গত রাতেই মহারাষ্ট্রের পুনেতে এক দম্পতির দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়াতে ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্য়া পৌঁছেছিল ৪৭-এ। এদিন কেরলের পাশাপাশি কর্নাটকেও আরও চার রোগীর করোনাভাইরাসের পরীক্ষায় ইতিবাচক ফল এসেছে। মঙ্গলবারের এই নতুন দশ রোগী যুক্ত হয়ে সংখ্যাটা অর্ধশতক ছাড়িয়ে ৫৭-তে গিয়ে দাঁড়াল।

আরও পড়ুন - বিরিয়ানি আর মায়ের আদরেই জব্দ 'করোনা', নিজের অভিজ্ঞতা জানালেন ভারতের প্রথম রোগী

এদিন কর্ণাটকের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বি শ্রীরামুলু জানান, কর্ণাটকে করোনাভাইরাস পরীক্ষায় ৪ টি ক্ষেত্রে ইতিবাচক ফল নিশ্চিত হয়েছে। তাঁদের তো বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েইছে, সেইসঙ্গে তাঁদের পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের আলাদাভাবে বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে। তাঁদের নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। সংক্রমণের বিস্তার যাতে আর না ঘটে তার জন্য তিনি নাগরিকদের সবরকম সাবধানতা অবলম্বন করতে এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন।

আরও পড়ুন - করোনা-সচেতনতায় পার্কে মিমি, বাচ্চাদের সঙ্গে খেলতে খেলতেই দিলেন সুরক্ষার পরামর্শ

কর্নাটকের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার পরই কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানান, দক্ষিণের এই রাজ্যে আরও ছয়টি নিশ্চিত করোনভাইরাস আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। ফলে সব মিলিয়ে এই রাজ্যের মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন ১২। এউই রাজ্যেই ভারতের প্রথম কোভিড-১৯ রোগীর সন্ধান এসেছিল। প্রথম তিনজন রোগ সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরে যান। তারপর একই পরিবারের ৫জন ব্যক্তি ও এক তিন বছরের শিশু নতুন করে করোনার কবলে পড়ে।

আরও পড়ুন - করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সহজ ১০টি উপায়

এই অবস্থায় আগামী ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত কেরলে সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত ক্লাস ও পরীক্ষা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিল কেরল সরকার। অষ্টম, নবম ও দশম শ্রেণির পরীক্ষা অবশ্য পূর্বনির্ধারিত সূচি মেনেই হবে। এছাড়া সমস্ত অবকাশ, টিউশন ক্লাস, অঙ্গনওয়ারি ও মাদ্রাসাগুলিকেও ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখা হবে।

করোনাভাইরাস সংক্রমন বর্তমানে বিশ্বের ১০০ টিরও বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। মঙ্গলবারই সকালে ইরান থেকে ৫৮ জন ভারতীয়কে বিশেষ বিমানে ভারতে ফিরিয়ে এনেছে ভারতীয় বায়ুসেনা। করোনার ছোবলে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ দেশগুলির অন্যতম হল ইরান। সেই দেশে এখনও কয়েকশো ভারতীয় আটকে রয়েছেন। এদিন থেকে তাদের দেশে ফেরানোর কাজ শুরু করল কেন্দ্রীয় সরকার। বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর টুইট করে ভারতীয় নাগরিকদের নিয়ে ওই বিমানের ভারতে অবতরণের খবর জানান। আপাতত সকলকে ১৪ দিনের জন্য বিচ্ছিন্ন করে রাখা হবে।