Asianet News Bangla

ক্রমশই শ্রীঘরের দিকে তাহির হোসেন, গত ২৪ ঘণ্টায় বহিস্কার থেকে এফআইআর দায়ের তাঁর বিরুদ্ধে

  • আইনের ফাঁস ক্রমশই কঠোর হচ্ছে তাহির হোসেনের
  • একাধিক ভিডিও এই মুহূর্তে ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায় 
  • এইসব ভিডিও-তে তাহিরের উপস্থিতি ঘিরে তৈরি হয়েছে বিতর্ক
  • তাহিরকে বহিষ্কার করে দিয়েছে আম আদমি পার্টি 
Tahir Hussain charged with murder Delhi violence, suspended by AAP
Author
Kolkata, First Published Feb 28, 2020, 10:41 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দিল্লির হিংসায় এবার সরাসরি নাম জড়াল আপ কাউন্সিলর তাহির হুসেনের। আইবি কর্মী অঙ্কিত শর্মাকে খুনের অভিযোগ দায়ের হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। উত্তর পূর্ব দিল্লির জাফরাবাদের একটি নর্দমার ধার থেকে উদ্ধার হয়েছিল অঙ্কিত শর্মার নিথর দেহ। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান মঙ্গলবার বাড়ি ফেরার পথেই অঙ্কিতকে হত্যা করা হয়েছে। দেহ উদ্ধার হয় বুধবার।  আর অঙ্কিতের বাবার অভিযোগ এই হামলায় সরাসরি হাত রয়েছে আপ কাউন্সিলর তাহির হুসেনের। বাবার অভিযোগের ভিত্তিতেই অঙ্কিত শর্মা খুনের মামলা দায়ের হয়েছে। তাতেই নাম রয়েছে আপ কাউন্সিলর তাহির হুসেনের। এই ঘটনা সামনে আসার পরই তাহির হুসেনের প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিল করেছে আপ। 

আরও পড়ুনঃ জ্বলন্ত দিল্লির আবহে আজ মুখোমুখি মমতা-অমিত শাহ, বৈঠক নিয়ে তীব্র কটাক্ষ বাম-কংগ্রেসের

দিল্লির হিংসায় দলের সদস্যের নাম জড়ানোয় কিছুটা হলেও বিড়ম্বনায় আপ সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল। প্রথম থেকেই তাঁর অভিযোগ সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ ছিল নিস্ক্রিয়। কিন্তু দলের সদস্যের নাম জড়ানোর ঘটনার পর ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেমে পড়েছে  আপের শীর্য নেতৃত্ব। অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়ে দিয়েছেন, হিংসার ঘটনায় তাঁর দলের কেউ যুক্ত থাকলে দ্বিগুণ শাস্তি দেওয়া হবে। পাশাপাশি অভিযুক্ত তাহির হুসেনের প্রাথমিক সদস্য পদও বাতিল করেছে আপ। দিল্লিতে যখন তুলুম হিংসা চলছে তখন উত্তর পূর্ব দিল্লিতে একবারও যাননি কেজরিওয়াল। তিনি গেলে তাঁর সঙ্গে পুলিশও যেত। সংঘর্ষে সাময়িক ইতি পড়ত বলেও মনে করছেন স্থানীয়রা। অথচ সদ্য হওয়া দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে এই এলাকা থেকে প্রচুর ভোট পেয়েছে আম আদমি পার্টি। 

আরও পড়ুনঃ ধ্বংসের ধূসরতা, বাতাসে পোড়া গন্ধ, চলতে ফিরতে মিলছে লাশ - দিল্লির হিংসা ছবিতে ছবিতে

তাহিরের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে বিজেপি নেতা কপিল মিশ্ররও। উত্তর পূর্ব দিল্লির বিস্তীর্ণ এলাকায় নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের পক্ষে সাওয়াল করতে দেখা গিয়েছিল কপিলকে। সেই সময় হিংসা ছড়ানোর অভিযোগও উঠেছিল কপিল মিশ্রর বিরুদ্ধে। কপিল মিশ্রর দাবি খতিয়ে দেখা হোক তাহিরের ফোনের রেকর্ডও। তাঁর অনুমান ঘটনার দিন একাধিকবার কেজরির সঙ্গে কথা বলে ছিলেন তাহির। পরোক্ষভাবে কপিল মিশ্র কাঠগড়ায় তুলতে চাইছেন অরবিন্দ কেজরিওয়ালকেও। 

একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে মুখ ঢাকা কয়েকজন যুবকের সঙ্গে রয়েছেন তাহির হুসেন। যারা লাঠি পাথর গুলি বয়ে নিয়ে যাচ্ছে। পেট্রোল বোমাও ছিল তাদের সঙ্গে। বাড়িতে অ্যাসিডের পাউচও রয়েছে। 

আরও পড়ুনঃ দিল্লির হিংসায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৮, আশঙ্কাজনক আরও কয়েকজন

কিন্তু তাহিরের দাবি অঙ্কিত শর্মা হত্যায় তাঁর কোনও হাত নেই। পুরো ঘটনার তদন্তেরও দাবি জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশই তাহির বলেছেন,  ভিডিওটি গত সোমবাররে। সেই সময় তাঁর বাড়িতে এক দল লোক ঢুকে পড়ে। তিনি লাঠি হাতে তাদের ভয় দেখাতে চেয়েছিলেন। ওই দিনই পুলিশের উপস্থিতিতে তিনি ও তাঁর পরিবার অন্যত্র নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যান। তারপর থেকে আর বাড়ি ফেরেননি। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios