Asianet News Bangla

করোনার তৃতীয় ঢেউ অনিবার্য, ৬ থেকে ৮ সপ্তাহের মধ্যেই আছড়ে পড়বে

  • আছড়ে পড়বে করোনার তৃতীয় ঢেউ
  • ছয় থেকে আট সপ্তাহের মধ্যেই এই ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে
  • এই পরিস্থিতিতে টিকাকরণ সম্পন্ন করা এখন একটা বড় চ্যালেঞ্জ
  •  একথা জানিয়েছেন এইমসের প্রধান চিকিৎসক রণদীপ গুলেরিয়া
Third Wave Inevitable Could Hit India In 6 To 8 Weeks says AIIMS Chief bmm
Author
Kolkata, First Published Jun 19, 2021, 1:00 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই এবার দেশে আছড়ে পড়বে তৃতীয় ঢেউ। তা আছড়ে পড়তে নাকি খুব বেশি দেরি নেই। আগামী ছয় থেকে আট সপ্তাহের মধ্যেই এই ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে। শনিবার একথা জানিয়েছেন অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেসের প্রধান চিকিৎসক রণদীপ গুলেরিয়া। তিনি বলেন, "করোনার তৃতীয় ঢেউ অনিবার্য। এই পরিস্থিতিতে দেশের বিশাল জনসংখ্যার টিকাকরণ সম্পন্ন করা এখন একটা বড় চ্যালেঞ্জ।"

আরও পড়ুন- অক্টোবরেই আসছে করোনার তৃতীয় তরঙ্গ, পরিস্থিতি মারাত্মক হওয়ার আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের

এরই মধ্যে করোনার নতুন এক প্রজাতির হদিশ পেয়েছেন গবেষকরা। যা ডেল্টা প্লাস নামে পরিচিত। এটি ডেল্টা প্রজাতির একটি নতুন রূপ। তবে দেশের মধ্যে এই প্রজাতিতে আক্রান্তের সংখ্যা খুবই কম। গুলেরিয়া জানিয়েছেন, এই প্রজাতি নিয়ে গবেষণা চলছে। তা কতটা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে তাও গবেষণার মাধ্যমে জানা যাবে। 

করোনা টিকা কোভিশিল্ডের প্রথম এবং দ্বিতীয় ডোজের মধ্যে ব্যবধান অনেকটাই বেশি। তবে তার কোনও খারাপ প্রভাব পড়বে না বলেই জানিয়েছেন গুলেরিয়া। পাশাপাশি, করোনার প্রথম এবং দ্বিতীয় ঢেউয়ের কথা মাথায় রেখে আনলক পর্বে দেশবাসীকে আরও বেশি সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। বলেন, "করোনার সংক্রমণ কম হওয়ায় এখন একাধিক রাজ্যই আনলকের পর্বে হাঁটতে শুরু করেছে। এখন অনেক বেশি সতর্ক থাকতে হবে। করোনার প্রথম এবং দ্বিতীয় ঢেউয়ের থেকে শিক্ষা নিয়ে আনলক পর্বে এখন অনেক বেশি সতর্কতা প্রয়োজন।"

আরও পড়ুন- ৭৪ দিনে দেশে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা সর্বনিম্ন, উদ্বেগ বাড়াচ্ছে দৈনিক করোনায় মৃত্যু

সম্প্রতি বেশ কয়েকজন চিকিৎসাবিজ্ঞানী এবং চিকিৎসক বলেছিলেন, এখন থেকেই যদি সচেতন না হওয়া যায় তাহলে দেশকে করোনাভাইরাসের তৃতীয় তরঙ্গের মুখোমুখি হতে হবে আগামী অক্টোবর মাসেই। একই সঙ্গে তাঁরা জানিয়েছেন মহামারির প্রাদুর্ভাব আগের তুলনায় ভালো করে নিয়ন্ত্রণ করা গেলেও আরও একবছর গোটা দেশেই কোভিড-১৯ এর হুমকি থেকেই যাবে। যদিও এইমস প্রধানের মতে অক্টোবরের আগেই আছড়ে পড়তে পারে তৃতীয় ঢেউ।

বিশ্বজুড়ে ৪০ জন চিকিৎসক, বিশেষজ্ঞ, গবেষক, ভাইরাসবিদ, মহামারি বিশেষজ্ঞ গত ৩ থেকে ১৭ জুন একটি আলোচনায় অংশ নিয়েছিলেন। সেখানেই তাঁরা করোনাভাইরাসের তৃতীয় তরঙ্গ নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেন। পাশাপাশি টিকাগুলি নিয়েও বিশেষজ্ঞরা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আগে কতজনের টিকাকরণ সম্পন্ন হবে সেটাই এখন সবথেকে বড় বিষয়।  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios