গুজরাট নির্বাচন ২০২২: প্রথম দফার সবচেয়ে ধনী ১০ প্রার্থী, সপ্তম শ্রেণী পাশ হয়েও রয়েছে ১৭টি গাড়ি!

| Nov 25 2022, 10:44 PM IST

Vote money

সংক্ষিপ্ত

প্রথম ধাপে সবচেয়ে ধনী প্রার্থীর সম্পদের পরিমাণ ১৭৫ কোটি টাকা। আসুন জেনে নেওয়া যাক প্রথম পর্বে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী দশ ধনী প্রার্থী কারা? কার কত সম্পত্তি আছে?

গুজরাটে ৮৯টি বিধানসভা আসনের প্রথম দফার ভোট পয়লা ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনী প্রচারে দিনরাত এক করেছেন প্রার্থীরা। প্রথম ধাপে মোট ৭৮৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে ২১১ জন প্রার্থীই কোটিপতি। এই পর্বে গড়ে প্রতিটি প্রার্থীর সম্পদের পরিমাণ ২.৮৮ কোটি টাকা। এছাড়াও ১২৫ জন প্রার্থী রয়েছেন যাদের ৫০ লাখ থেকে ২ কোটি টাকার সম্পদ রয়েছে।

প্রথম ধাপে সবচেয়ে ধনী প্রার্থীর সম্পদের পরিমাণ ১৭৫ কোটি টাকা। আসুন জেনে নেওয়া যাক প্রথম পর্বে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী দশ ধনী প্রার্থী কারা? কার কত সম্পত্তি আছে?

Subscribe to get breaking news alerts

আগে জেনে নিন কোন দলের সবচেয়ে ধনী প্রার্থী?

প্রথম পর্বে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ৭৮৮ প্রার্থীর মধ্যে ২১১ জনই কোটিপতি। এই ৮৯ শতাংশ বিজেপি প্রার্থীর মধ্যে বেশিরভাগই কোটিপতি। কংগ্রেসের ৭৩% এবং আম আদমি পার্টির ৩৮% প্রার্থী যাদের সম্পদ এক কোটি বা তার বেশি। গতবার অর্থাৎ ২০১৭ সালে, বিজেপির ৮৫%, কংগ্রেসের ৭০% এবং ভারতীয় উপজাতি পার্টির ৬৭% প্রার্থী ছিলেন কোটিপতি।

দশটি ধনী প্রার্থীর সম্পর্কে জানুন

১. রমেশভাই বীরজিভাই তিলালা: রমেশভাই বীরজিভাই টিলালা, রাজকোট দক্ষিণ থেকে ভারতীয় জনতা পার্টির টিকিটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, গুজরাটের প্রথম পর্বে ৭৮৮ জন প্রার্থীর মধ্যে সবচেয়ে ধনী। তিলালার সম্পদ রয়েছে ১৭৫ কোটি টাকারও বেশি। এর মধ্যে রয়েছে ১৯ কোটি স্থাবর এবং ১৫৬ কোটির বেশি স্থাবর সম্পত্তি। এখানে বাণিজ্যিক প্লট, কৃষি জমি এবং বাংলো রয়েছে যার মূল্য ১৫৩ কোটি টাকা। ১৭৫ কোটি টাকার মালিক হওয়া সত্ত্বেও রমেশভাইয়ের নিজস্ব কোনো গাড়ি নেই, স্ত্রীর নামে কোনো গাড়ি রেজিস্ট্রেশন নেই। রমেশভাই মাত্র ৭ম শ্রেণী পর্যন্ত পড়েছেন।

২. ইন্দ্রনীল রাজগুরু: রাজকোট পূর্ব থেকে কংগ্রেস প্রার্থী ইন্দ্রনীল রাজগুরু, গুজরাট নির্বাচনের প্রথম ধাপে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ৭৮৮ জন প্রার্থীর মধ্যে দ্বিতীয় ধনী ব্যক্তি। রাজগুরুর মোট সম্পদ ১৬২ কোটি টাকারও বেশি। এর মধ্যে ৬৬.৮৮ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পদ এবং ৭৬ কোটি টাকার বেশি অস্থাবর সম্পদ রয়েছে। রাজগুরুর ১৭টি বিলাসবহুল গাড়ি রয়েছে। এগুলি বিএমডব্লিউ থেকে ভক্সওয়াগেন এবং ল্যান্ড রোভার পর্যন্ত। ইন্দ্রনীল রাজগুরু দ্বাদশ পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন।

৩. জওহরভাই পথলজিভাই চাভদা: জামনগরের মানভদর থেকে বিজেপি প্রার্থী জওহরভাই পথলজিভাই চাভদার মোট সম্পত্তি ১৩০ কোটি টাকারও বেশি। জওহরভাই দশম শ্রেণী পর্যন্ত পড়েছেন। তার ২৫.৫৬ কোটি টাকারও বেশি মূল্যের অস্থাবর সম্পদ এবং ১০০ কোটি টাকারও বেশি অস্থাবর সম্পদ রয়েছে। ১.১৭ কোটির বেশি মূল্যের অলঙ্কার রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ঘড়ি থেকে সোনার গয়না সবকিছু। জওহরভাইয়ের ১১টি গাড়ি আছে।

৪. পুবুভ বীরম্ভ মানেক: দ্বারকা থেকে ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী পুবুভ বীরম্ভ মানেক ধনী প্রার্থীদের তালিকায় চার নম্বরে রয়েছেন। মানেকের মোট সম্পদ রয়েছে ১১৫ কোটি টাকারও বেশি। ২৯ কোটি টাকার স্থাবর ও ৮৬ কোটি টাকার বেশি অস্থাবর সম্পত্তি জড়িত। পূব বীরম্ভ মানেকও বেশি পড়াশোনা করেননি। তার নির্বাচনী হলফনামায় বলা হয়েছে, তিনি মাত্র তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। পুবুভ এর ৮২ লাখের বেশি মূল্যের গয়না এবং ১.৪৫ কোটি টাকার পাঁচটি বিলাসবহুল গাড়ি রয়েছে। মাত্র ৮৬ কোটি টাকার জমি ও বাড়ি আছে।

৫. ভাচুভাই ধরমশি আরেথিয়া: কচ্ছের রাপার বিধানসভা আসন থেকে কংগ্রেস প্রার্থী ভাচুভাই ধরমশি গুজরাটের পঞ্চম ধনী প্রার্থী। ভাচুভাইয়ের মোট সম্পত্তি ৯৭ কোটি টাকারও বেশি। এর মধ্যে রয়েছে ৭৫ কোটির বেশি মূল্যের অস্থাবর সম্পদ এবং ২২ কোটির বেশি মূল্যের স্থাবর সম্পদ। ভাচুভাই মাত্র একাদশ শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশুনা করেছেন। তার তিনটি বিলাসবহুল গাড়ি রয়েছে। সেখানে ২২ লক্ষ টাকার গয়না রয়েছে।

৬. রিভাবা জাদেজা: ক্রিকেটার রবীন্দ্র সিং জাদেজার স্ত্রী রিবাবা জাদেজা এবার বিজেপির টিকিটে লড়ছেন৷ জামনগর উত্তর থেকে রিভাবাকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। রিভাবার মোট সম্পত্তি ৯৭ কোটির বেশি। এর মধ্যে রয়েছে ৭৫.১৮ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পদ এবং ২২ কোটি টাকার বেশি মূল্যের অস্থাবর সম্পদ। রিভাবার বড় বাংলো আছে। এ ছাড়া প্রায় এক কোটি টাকার গয়না রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে সোনা, রূপা, হীরার গয়না। নির্বাচন কমিশনে দেওয়া হলফনামায় রিভাবা জানিয়েছেন, তাঁর কাছে মোট ৩৪.৮০ লক্ষ টাকার সোনার অলঙ্কার রয়েছে। এছাড়াও ১৪.৭০ লক্ষ টাকার হীরা এবং আট লক্ষ টাকার রুপোর গয়না রয়েছে। রবীন্দ্রের কাছে ২৩.৪৩ লক্ষ টাকার সোনার অলঙ্কার রয়েছে।

৭. মুলুভাই রণমালভাই কান্দোরিয়া: দ্বারকা আসন থেকে কংগ্রেস প্রার্থী মুলুভাই গুজরাটের সপ্তম ধনী প্রার্থী। মুলুভাইয়ের মোট সম্পত্তি ৮৮ কোটির বেশি। তাঁর ১৯.১১ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পদ এবং ৬৯.৪৯ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পদ রয়েছে।

৯. কান্তিভাই হিম্মতভাই বালার: কান্তিভাই হিম্মতভাই বালার, সুরাট উত্তর থেকে বিজেপির টিকিটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, গুজরাটের দশটি ধনী প্রার্থীর তালিকায়ও রয়েছেন। কান্তিভাই নবম ধনী প্রার্থী। তার মোট সম্পদ রয়েছে ৫৪ কোটি টাকা। এর মধ্যে রয়েছে ১.১৯ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পদ এবং ৫২.৭৮ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পদ।

১০. পুরুষোত্তমভাই সোলাঙ্কি: ভাবনগর গ্রামীণ থেকে বিজেপি প্রার্থী পুরুষোত্তমভাই সোলাঙ্কি গুজরাটের দশম ধনী প্রার্থী। সোলাঙ্কির মোট সম্পদ রয়েছে ৫৩ কোটিরও বেশি। এর মধ্যে রয়েছে ৯.৭৪ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পদ এবং ৪৩.৭৭ কোটি টাকার অস্থাবর সম্পদ।