Asianet News BanglaAsianet News Bangla

আনলক ভারতে বেড়েই চলেছে সংক্রমণ, ফের সম্পূর্ণ লকডাউনের পথেই ফিরল পুনে

 

  • আনলকে লাগামছাড়া ভাবে বাড়ছে সংক্রমণ
  • ফের লকডাউনের পথে হাঁটল পুনে
  • ১১ দিনের জন্য সম্পূর্ণ লকডাউনের সিদ্ধান্ত
  • পিম্পরি-ছিনছোড়েও থাকবে লকডাউন
Total lockdown in Maharashtra Pune from July 13 to 23 BSS
Author
Kolkata, First Published Jul 10, 2020, 8:27 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দেশের মধ্যে করোনা সংক্রমণে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রের। মারাঠা রাজ্যে ইতিমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৩০ হাজার ছাড়িয়ে চলে গিয়েছে। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন নতুন রেকর্ড গড়ছে। তার মধ্যেই আনলক পর্বে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হওয়ার পথে ফিরছিল মহারাষ্ট্র। কিন্তু তাতেই ঘটল বিপত্তি। সংক্রমণ ক্রমেই নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে বসেছে। তাই ফের লকডাউনের পথে ফিরছে পুনে।

আগামী ১৩ জুলাই থেকে ২৩ জুলাই পুণেতে কড়া লকডাউন জারি করা হবে বলে জানিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। একইসঙ্গে পার্শ্ববর্তী পিম্পরি-ছিনছোড়েও সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে। প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, শুধুমাত্র অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবার দোকান খোলা থাকবে।

আরও পড়ুন: আরও শক্তিশালী ভারতীয় বায়ুসেনা, চুক্তি মতো সব অ্যাপাচে আর চিনুক বাহিনীর হাতে তুলে দিল বোয়িং

পুনের ডিভিশনাল কমিশনার দীপক হাইসেকর জানান, পুনে, পিম্পরি-ছিনছোড় এবং গ্রামীণ পুনের একাংশে ১১ দিনের লকডাউনের ঘোষণা করা হয়েছে। এই সময় শুধুমাত্র দুধ, ওষুধের মতো জরুরি পরিষেবার দোকান এবং হাসপাতাল খোলা থাকবে। বাকি সব কিছু বন্ধ থাকবে। পুনের জেলাশাসক আরও জনিয়েছেন, কোঠর লকডাউনের জন্য ২২ টি গ্রাম চিহ্নিত করা হয়েছে। সংক্রমণের শৃঙ্খল আটকানোর জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: অক্সফোর্ডের করোনার ভ্যাকসিন আসতে আর কতদিন লাগবে, সময় জানিয়ে দিলেন গবেষকরা

বৃহস্পতিবার সন্ধেবেলা মহারাষ্ট্র সরকারের স্বাস্থ্য দফতর যে বুলেটিন প্রকাশ করেছিল তাতে দেখা গিয়েছিল,  ২৪ ঘণ্টায় পুনে জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৮০৩ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৪ হাজার ৩৯৯ জন। বৃহস্পতিবারের বুলেটিন অনুযায়ী ২৪ ঘণ্টায় পুণে জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৩৪ জনের। মোট মৃতের সংখ্যা ৯৭৮ জন।

পুনে মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন এলাকায় সংক্রমণ ভয়াবহ জায়াগায় পৌঁছে গিয়েছে। শুধু এই এলাকাতেই সংক্রামিতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১০ হাজার। শহর এলাকা ছাড়াও সংক্রমণ বাড়ছে পিম্পিরি-ছিনছোড়েও। বৃহস্পতিবার সন্ধের বুলেটিন অনুযায়ী শিল্পতালুক পিম্পিরি-ছিনছোড়ে ৫৭৩ জন নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এই এলাকার সমস্ত কলকারখানা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। শহরাঞ্চলের তুলনায় পুনের গ্রামীণ এলাকায় সংক্রমণ কিছুটা কম। তবে গ্রামীণ এলাকাএও লকডাউনের আওতায় রাখা হয়েছে। গোতা জেলাতেই কার্যত ১১ দিন পুরোপুরি লকডাউন ঘোষণা করেছে মহারাষ্ট্র সরকার। গণ পরিবহণেও জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

এদিকে লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়েছে থানে পুরসভাও। গত ২ জুলাই থেকে সম্পূর্ণ লকডাউনে রয়েছে থানে। ১২ জুলাই পর্যন্ত সেই লকডাউন চলার কথা ছিল। লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে পুরসভা ১৯ জুলাই করে দিয়েছে। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios