গোয়া বরাবরই পর্যটকদের পছন্দের তালিকায় প্রথম সারিতে রয়েছে। আর এখানকারই ছবির মত সুন্দর গ্রাম পারা। উত্তর গোয়ার এই গ্রামেই রয়েছে রাজ্যের প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পর্রীকরের পৈত্রিক বাড়ি। আর সেই পারাই এবার উঠে এসেছে খবরের শিরোনামে। এখন থেকে এই গ্রামে আসা পর্যটকদের ছবি তুলতে গেলে গুনতে হবে গাটের কড়ি।

আরও পড়ুন: ট্রাম্পকে আঙুল দেখিয়ে খুইয়েছিলেন চাকরি, সেই মেয়েই জিতলেন মার্কিন নির্বাচন

নারকেলে গাছে ঘেরা সমুদ্রের নিল জলের মাঝে একটি ছবি তুলতেই পর্যটকদের খরচ পড়বে ১০০ থেকে ৫০০ টাকা। পারা গ্রাম পঞ্চায়েতের তরফ থেকে এই শুল্ক বসানো হয়েছে, যার নাম দেওয়া হয়েছে 'স্বচ্ছতা ট্যাক্স'। তবে পর্যটন শিল্পের পক্ষ থেকে  পারা গ্রাম পঞ্চায়েতের তরফে নেওয়া এই সিদ্ধান্তকে খুব একটা ভাল চোখে দেখা হচ্ছে না। 

আরও পড়ুন:পাক মুলুকে একসঙ্গে আত্মঘাতী ২ হিন্দু বধূ, কারণ নিয়ে ধন্দে ইমরানের পুলিশ

আরও পড়ুন:তৃণমূলকে রুখতে সঙ্গে রাখুন তরোয়াল, বিতর্কিত মন্তব্য অভিনেত্রী কাঞ্চনার

গ্রাম পঞ্চায়েতের তরফে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, " ফিল্ম শ্যুট ও ফটো শ্যুট দুই ক্ষেত্রেই দিতে হবে ট্যাক্স। বাণিজ্যিক ফোটশ্যুট ও ব্যক্তিগত ফটোশ্যুটের জন্য আলাদা শুল্ক ধার্য করা হয়েছে। এর ফলে পর্যটকরা হয়রানি শিকার হবে বলে আশঙ্কা করছেন গোয়ার ট্রাভেল এবং ট্যুরিজম অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি স্যাভিও মিসেইস। এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন প্রাক্তন সরপঞ্চ বেন্ডিট ডি'সুজাও। এই ধরণের শুল্র পর্যটকদের থেকে কখনই নেওয়া উচিত নয় বলে জানিয়েছেন ডি'সুজা।