ভারত সফরে এসে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম মোতেরার উদ্বোধন করছেন ট্রাম্প। ১ লক্ষ ১০ হাজার আসনের এই স্টেডিয়ামেই মার্কিন প্রেসিডেন্টের সম্মানে 'নমস্তে ট্রাম্প' অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে ভারত সরকার। ভিআইপি, ভিভিআইপি-তে গিজগিজ করছে এখন গোটা আহমেদাবাদ।আর এসবের মাঝেই বাঙালির প্রতিনিধি হিসাবে উজ্জ্বল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

এদিন আহমেদাবাদে পৌঁছেই গান্ধীজির সাবরমতী আশ্রমে স্ত্রী মেলানিয়ারকে নিয়ে যাবেন ট্রাম্প। তারপর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে রোড শো করে যোগ দেবেন মোতেরা স্টেডিয়ামে 'নমস্তে ট্রাম্প' অনুষ্ঠানে। ট্রাম্পের হাত ধরেই এদিন পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম হিসাবে আত্মপ্রকাশ করবে মোতেরা। আর সেই অনুষ্ঠানেই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হিসাবে উপস্থিত থাকছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: ট্রাম্পের সফরে চাপ বাড়ছে পাকিস্তানের, বাণিজ্য চুক্তি না হলেও ফায়দা ভারতের

এক লক্ষ ১০ হাজার দর্শকাসনের মোতেরা স্টেডিয়াম বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট স্টেডিয়াম হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডকে পিছনে ফেলে দিয়েছে। তবে ১৯৮২ সালে প্রথমবার তৈরি হয়েছিল এই স্টেডিয়াম। যার অপর নাম সর্দার পটেল। ২০১১ সালের ডিসেম্বরে মোতেরা স্টেডিয়ামকে ঢেলে সাজানোর কাজ শুরু হয়। বেশকিছুদিন আগে নতুন মোতেরা স্টেডিয়ামের ছবি ট্যুইট করেছিল বিসিসিআই। তাতে প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যা। লিখেছিলেন, "এই সুবিশাল ও সুন্দর স্টেডিয়াম দেখে খুব ভালো লাগছে, একজন খেলোয়াড় ও অধিনয়াক হিসেবে এই মাঠে অনেক স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে, আগামী ২৪ তারিখ দেখার জন্য সাগ্রহে অপেক্ষা করছি।"

আরও পড়ুন: 'সারা দেশ অপেক্ষা করছে', 'বন্ধু' ট্রাম্পকে ট্যাগ করে জোড়া ট্যুইট মোদীর

 

 

ইতিহাসের সাক্ষী হতে আহমেদাবাদে ইতিমধ্যে পৌঁছে গিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনয়াক তথা বর্তমানে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। বোর্ড সচিব জয় শাহকে নিয়ে সৌরভ সকালেই পৌঁছে যান মোতেরা স্টেডিয়ামে। এখানেই অনুষ্ঠিত হবে 'হাউডি মোদী'র আদলে 'নমস্তে ট্রাম্প'। মার্কিন প্রেসিডেন্টের আগমনের আগে তাই নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার ঘেরোটোপে মোতেরা। গুজরাত পুলিশের চেতক কমান্ডো ও ব়্যাপিড অ্যাকশন টিমের সদস্যরা রয়েছে স্টেডিয়ামে। শেষ মুহুর্তের নিরাপত্তা দেখতে হাজির হয়েছিল আহমেদাবাদ পুলিশের ঘোড়সওয়ার দল। রবিবার রাত থেকে বিমানবন্দর এবং মোতেরা স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় মোতায়েন রয়েছে প্রচুর নিরাপত্তাকর্মী।