২০২১ সালের বাজেটে প্রবলভাবে নজর দেওয়া হয়েছে শিক্ষাখাতে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে শিক্ষাক্ষেত্রটি। শিক্ষার পাশাপাশি গবেষণা দক্ষতা বৃদ্ধি ও উদ্ভাবনী শক্তি বাড়াতে বাজেটে বরাদ্দ করা হয়েছে। শিক্ষাক্ষেত্রে বাজেট বিধাননিয়ে ওয়েবিনারে আলোচনাক সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, আত্মনির্ভর ভারত গঠনের জন্য যুবকদের আত্মবিশ্বাসী করে তুলতেই এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন আত্মবিশ্বাস তখনই আশে যখন যুবকরা শিক্ষা, দক্ষতা আর নিজেদের জ্ঞানের ওপর বিশ্বাস আর্জন করবে। 


প্রতিভা প্রকাশে ভাষা কোনও বাধা হয়ে দাঁড়াবে না বলেও জোর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন দেশের প্রতিটি ঘরে রয়েছে প্রতিভা। নতুন জাতীয় শিক্ষানীতেতে ভারতীয় ভাষার ব্যবহারকে উৎসহ দেওয়া  হয়েছে। তিনি আরও বলেন আগামী দিনে প্রতিটি  গুরুত্বপূর্ণ কনটেন্টকে ভারতয় ভাষায় উপলব্দ করার দায়িত্ব গ্রহণ করতে হবে বিশেষজ্ঞদের।

অধীর বনাম অজয় ইস্যুতে এবার মুখ খুললেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, জোট নিয়ে ব্যাখ্যা দিলেন কংগ্রেস নেত্রী ...  

ঠাকুমার ভুল স্বীকার করলেন নাতি, রাহুল গান্ধী বলেন জরুরি অবস্থা ছিল ইন্দিরার ভুল সিদ্ধান্ত ...

ভারত হাইড্রোজেন যানবাহন পরীক্ষা করছে। এখন আমরা হাইড্রোডেনকে পরিবহনেপ জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করতে প্রস্তুত হয়েছে। আগামী দিনে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ শিল্পের রূপ নেবে। ভবিষ্যত জ্বালানি সবুজ জ্বালানি হিসেবে এটি গুরুত্বপূর্ণ বলে বাজেটে হাইড্রোজেন মিশনে একটি বিশেষ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বাজেট বিধানের সর্বোত্তম ও দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য বিশেষজ্ঞদের কাছে একটি ভালো রোডম্যাপ নিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেছেন বাজেট শিক্ষাকে কর্মসংস্থান ও উদ্যোক্তা সক্ষমতার সাঙ্গে যুক্ত করার জন্য ভারতের প্রচেষ্টাকে আরও বাড়িয়ে তুবতে হবে।