Asianet News BanglaAsianet News Bangla

বিয়ের রাতেই কনের পেটে ব্যথা, ফুলশয্যায় বিয়ের সুখ উবে গেল বরের - কী ঘটল জানেন

বিয়ের রাতেই কনে পেটে ব্যথা করছে বলে জানিয়েছিলেন কনে, ফুলশয্যার রাতে বিয়ের (Wedding) সুখ নিমেষে উধাও বরের। কী ঘটল, উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) মিরাটে (Meerut), আসুন জেনে নেওয়া যাক। 
 

Uttar Pradesh man finds out wife 5-month-pregnant on wedding night ALB
Author
Kolkata, First Published Dec 31, 2021, 4:09 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

পুরোদমে চলছে বিয়ের মরসুম (Wedding Season)। করোনাভাইরাস মহামারির (Coronavirus Pandemic) আতঙ্কের মধ্য়েই সারা জীবন একসঙ্গে পথ চলার শপথ নিচ্ছেন বহু নবদম্পতি। এরই মধ্যে, একেবারে ফুলশয্যার রাতেই মর্মান্তিকভাবে প্রতারিত হওয়ার এক অদ্ভূত খবর এল উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) মিরাট (Meerut) থেকে। জানা গিয়েছে বিয়ের রাতেই কনে পেটে ব্যথা করছে বলে জানিয়েছিলেন। ফুলশয্যার রাতে যা হল, তাতে বিয়ের সুখ নিমেষে উধাও নববিবাহিত বরের। কী ঘটল, আসুন জেনে নেওয়া যাক। 

ঘটনাটি, মিরাটের খারখোদা থানা এলাকার অন্তর্গত পিপলিখেড়া গ্রামের। গত ২৫ ডিসেম্বর ধূমধাম করে এই গ্রামের বাসিন্দা সালমানের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল জাকির কলোনি এলাকার বাসিন্দা সানিয়ার। জানা গিয়েছে, বিয়ের রাতেই সানিয়া, তাঁর স্বামীকে জানিয়েছিলেন তাঁর পেটে ব্যথা করছে। তবে, সেই সময় কেউ তা নিয়ে বিশেষ মাথা ঘামাননি। দুদিন পর ছিল ফুলশয্যা। ওই রাতেই এমন কিছু ঘটেছিল, যাতে করে সালমানের অন্যরকম সন্দেহ হয়েছিল। পরদিন সকালেই সে তাঁর মাকে জানিয়েছিল তাঁর সন্দেহের কথা। 

এরপর, সালমান ও তাঁর মা, সানিয়াকে নিয়ে গিয়েছিলেন কাছের এক হাসপাতালে। সন্দেহ নিরসনের জন্য, সানিয়ার পেটের ইউএসজি (USG) করানো হয়। ইউএসজি রিপোর্টে আসতেই, সালমান ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গিয়েছিল। ইউএসজি রিপোর্টে দেখা যায়, সালমানের সদ্য বিবাহিত স্ত্রী সানিয়া অন্তত ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। শুধু তাই নয়, তাঁর গর্ভে বেড়ে উঠছে যমজ সন্তান। এই খবরে গোটা পরিবারে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছিল। 

তবে, এতবড় প্রতারণার পর, সালমান যখন এই বিষয়ে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের সঙ্গে কথা বলতে গিয়েছিলেন, তাঁর শ্বশুরমশাই, উল্টে তাঁকেই মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে তার পরিবারের পক্ষ থেকে। আরও বলা হয়, সানিয়ার বাড়ি থেকে সালমানকে ১০ লক্ষ টাকা দেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে। স্পষ্ট ভাষায় বলা হয়েছে, তাঁর কাছ থেকে দশ লক্ষ টাকা আদায় করা হবে বলেই সালমানের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হয়েছিল সানিয়ার। এখন যদি তিনি টাকাটা না দেন, তাহলে তাঁকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হবে। 

এরপরই ক্ষুব্ধ সালমান ও তাঁর পরিবার ন্যায়বিচারের আশায় মিরাটের এসএসপি অফিসে যান। সালমান তার স্ত্রী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন এবং এই বিষয়ে পুলিশের কাছে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তদন্ত করে সুষ্ঠু ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তাঁরা আশ্বাস দিয়েছেন সালমানকে। এই অবস্থায়, এইটুকু ছাড়া তিনি আর কীই বা আশা করতে পারেন?
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios