পুলিশ, প্রশাসনকে সমাজের রক্ষক বলা হয়। আর সেই পুলিশের কাছে অভিযোগ জানাতে গিয়েই এক লজ্জাজনক পরিস্থিতির সম্মুখীন হলেন এক মহিলা। ঘটনাস্থল যোগী আদিত্যনাথের রাজ্য উত্তরপ্রদেশ। 

উত্তরপ্রদেশের দেওরিয়ার ভাতনি থানায় অভিযোগ লেখাতে গিয়েছিলেন ওই মহিলা। দীর্ঘ দিন জমি নিয়ে বিবাদ চলছিল। তাই নিয়েই থানায় অভিযোগ জানাতে গিয়েছিলেন ওই মহিলা। সেই সময় থানায়য় কর্তব্যরত ছিলেন স্টেশন হাউস অফিসার ভীষ্ম পাল সিং। অভিযোগ, সেই সময় অভিযোগকারিনীর রিপোর্ট না লিখে তাঁর সামনে হস্তমৈথুন করছিলেন ওই পুলিশ আধিকারিক।

আরও পড়ুন: করোনার লক্ষণ নিয়েই বিয়ের পিঁড়িতে বসে মৃত্যু ডেকে আনল বর, অনুষ্ঠানে এসে আক্রান্ত হলেন শতাধিক

চোখের সামনে এমন ঘটনা দেখে অবশ্য দমে যাননি ওই মহিলা। উল্টে অপকর্মের সেই ভিডিও রেকর্ড করে নেন তিনি। তাপরেই তা  সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দেন। বিষয়টি জানাজানি হতেই এরপর নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। বরখাস্ত করা হয় অভিযুক্ত আধিকারিক ভীষ্ম পাল সিংকে। 

আরও পড়ুন: চিনের পর দাঁত-নখ বার করছে পাকিস্তানও, গিলগিট-বালতিস্তানে অতিরিক্ত ২০ হাজার সেনা মোতায়েন

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন নেটিজেনরা। অভিযুক্ত পুলিশ আধিকারিকের কড়া শাস্তি দাবি করা হয়। জানা যাচ্ছে, এর আগেও ওই পুলিশ আধিকারিকের কুকীর্তির সম্মুখীন হয়েছেন ওই মহিলা। তিনি জানান, অভিযোগ দায়ের করার জন্য ওই  আধিকারিকের চেম্বারে গিয়েছিলেন। তখনই মহিলার সামনে নিজের যৌনাঙ্গ স্পর্শ করেন পুলিশ আধিকারিক। তবে এই ঘটনা আগেও তাঁর সঙ্গে ঘটেছে বলে দাবি করেছেন মহিলা।  জানান, প্রথমে দু'একবার তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কারণ জমি নিয়ে সমস্যার দ্রুত মীমাংসা যাতে দ্রুত হয় তার চেষ্টা করছিলেন তিনি। কিন্তু আধিকারিক একই কাজ বার বার করছিলেন। এমনকী মহিলার মেয়ের সামনেও ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটতে থাকে । এরপরেই  তিনি সিদ্ধান্ত নেন পুরো বিষয়টি ক্যামেরাবন্দি করবেন। তারপর লুকোন ক্যামেরায় ভিডিও তুলে তা ইন্টারনেটে ছেড়ে দেন তিনি। নিমেষে ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিও ।

ঘটনা প্রসঙ্গে দেওরিয়ার এসপি শ্রীপতি মিশ্রা বলেন, "ওই আধিকারিককে বরখাস্ত করে আর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে"