করোনা মহামারীর আবহেই বন্যা পরিস্থিত দেখা দিয়েছে দেশের একাধিক রাজ্যে। বিহার ও উত্তর-পূর্বের অসমের মত ভাসছে উত্তরাখণ্ডও।  লাগাতার বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত দেবভূমি। বন্যা এবং ভূমি ধসের দাপটে ভেঙে গিয়েছে রাস্তাঘাট। জলের তোড়ে ভেসে গিয়েছে বাড়ি। আর সেই বন্যা পরিস্থিতি দেখতে গিয়ে নিজেই বিপদে পড়লেন রাজ্যের এক বিধায়ক। 

আরও পড়ুন: লাদাখে এখনও রয়েছে লাল ফৌজের অস্তিত্ব, পঞ্চম দফার বৈঠকের আগে চিনের দাবি উড়িয়ে ফের সরব ভারত

আরও পড়ুন: নয়া রেকর্ড গড়ে দৈনিক আক্রান্ত ৫৫ হাজার ছাড়াল, দেশে মোট সংক্রমণ ১৬ লক্ষের গণ্ডি পেরোল

পিথোরগড় জেলার বন্যা পরিস্থিতি দেখতে গিয়েছিলন কংগ্রেস বিধায়ক হরিশ ধামি। ধারচুলা এলাকায় ছোট এক খরস্রোতা নদী পেরোতে গিয়ে হঠাৎই পা পিছলে পড়ে যান তিনি। বন্যার জলে ভরপুর স্রোতস্বিনীর টানে একেবারে ভেসে যাওয়ার যোগার হয়েছিল তাঁর। যদিও দলীয়কর্মীরা কোনওরকমে তাঁকে উদ্ধার করেন। একেবারে নবজীবন পান  বিধায়ক হরিশ ধামি। সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন ছড়িয়ে পড়েছে সেই ভিডিও। 


 বেশ কয়েকদিন ধরেই উত্তরাখণ্ডে প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে। আর সেই কারণে রাজ্যের একাধিক রাস্তায় ধস নেমেছে। এমনি ধস নামে চামোলি জেলার বাজপুরে বদ্রিনাথ ন্যাশনাল হাইওয়েতে। একের পর এক ধস নামার কারণে রাজ্যের বহু রাস্তা নষ্ট হয়ে গেছে।

 

 

এদিকে উত্তরাখণ্ডে মেঘভাঙা বৃষ্টিও শুরু হয়েছে। গতবছরও মেঘভাঙা বৃষ্টির সাক্ষী ছিল উত্তরাখণ্ড। এবছরও ইতিমধ্যে পিথোরগড় জেলার বাঙ্গাপানি এলাকার মেঘভাঙা বৃষ্টির কারণে একাধিক মৃত্যু ও নিখোঁজের খবর পাওয়া গিয়েছে।