ইদানিং সকলের হাতের মুঠোতেই রয়েছে ক্যামেরা। সেলফি তোলার নেশায় দুর্ঘটনা ঘটানোর মতো এর যেমন কিছু বাজে দিক রয়েছে, তেমনই কিছু ভালো দিকও রয়েছে। ক্যামেরা ছিল বলেই মধ্যপ্রদেশের শিউপুরের সরকারি জেলা হাসপাতালের এক অদ্ভুত ঘটনা ধরা পড়ে গেল। ক্যামেরায় ওঠা ভিডিও দেখিয়ে অভিযোগ করা হচ্ছে সাপে কাটা এক রোগীকে হাসপাতালের নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের মধ্যেই তাঁ উপর কালাজাদু প্রয়োগ করেন এক ওঝা।

জানা গিয়েছে যোগেন্দ্র সিং রাঠোর নামে স্থানীয় এক বাসিন্দাকে সাপে কামড়েছিল। তাঁকে তৎক্ষণাৎ জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার একটি ভিডিও স্তানীয় স্তরে ভাইরাল হয়। সেই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে জরুরি বিভাগের একটি বেডে যোগেন্দ্র সিং-কে শুইয়ে রাখা হয়েছে, এবং একজন ওঝা সম্ভবত নিমের ডাল বা ওই ধরণের একটি জিনিস দিয়ে তাঁর শরীরে আঘাত করছেন। কালাজাদুর প্রয়োগ করছেন।

ঘটনা ভিডিও ভাইরাল হতেই বৈজ্ঞানিক কেন্দ্রে এই অবৈজ্ঞানিক কাজকর্ম নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এরপরই নড়ে চড়ে বসেছে বাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তারা জানিয়েছে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হবে এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপও গ্রহণ করা হবে। হাসপাতালে কে ওই ওঝা-কে ডেকে আনল, তিনি কীভাবে হাসপাতালের মধ্যে জাদুবিদ্যা করার অনুমতি পেলেন, সবটাই খতিয়ে দেখা হবে।

জেলা হাসপাতালের আরএমও এসএন বিন্দাল জানিয়েছেন, বিষয়টি তাঁর গোচরে এসেছে। যদি ঘটনা সত্যি হয়ে থাকে তবে হাসপাতালে কালাজাদু করা একেবারেই অনৈতিক কাজ বলে জানিয়েছেন তিনি। ঘটনার তদন্ত করে এর পিছনে যারা জড়িত, তাদের সকলের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।