আচমকাই বোমা বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে গোটা এলাকা। আর এই বোমা বিস্ফোরণের ফলেই মারাত্মকভাবে যখম হয়েছেন পাঁচ জন। ঘটনাটি ঘটেছে নেপালের ধানগড়ি এলাকায়। সেখানকার একটি স্থানীয় হোটেলে আগুন লাগে বলে খবর। 

সাতকাণ্ড রামায়ণের পর রাস্তায় এল পাকিস্তান, কুলভূষণকে কনস্যুলার অ্যাকসেস

সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, আহতদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে স্থানীয় হাসপাতালে, তাঁদের চিকিৎসা চলছে। আরও জানা গিয়েছে যে, স্থানীয় ওই হোটেলের মধ্যেই বিস্ফোরণটি ঘটানো হয়েছে বলে খবর। তদন্তকারী পুলিশ সুপার সুদীপ গিরি জানিয়েছেন, ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে একটি চিনা পিস্তল। 

কুলভূষণ মামলায় বার বার ভিয়েনা চুক্তি লঙ্ঘন পাকিস্তানের! রায়ের অপেক্ষায় ভারত

নেপালের স্থানীয় পত্রিকা সূত্রে খবর,  পুলিশের সন্দেহ, এই বিস্ফোরণের পিছনে হাত রয়েছে নেপালের কমিউনিস্ট পার্টির নেতা বিক্রম চাঁদ 'বিপ্লব'-এর। যদিও এই বিষয়ে এখনই নিশ্চিত করে কিছুই বলা যাচ্ছে না। পুলিশ ঘটনার পুর্ণাঙ্গ তদন্ত শুরু করেছে।