প্রবল ভূমিকম্পের জেরে কেঁপে উঠল ইন্দোনেশিয়া। ইন্দোনেশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ মালুকুর সেরাম দ্বীপে প্রবল ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে বলে খবর।  রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.৫। প্রবল ভূকম্পনের জেরে বেশ কয়েকটি বিল্ডিং ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে খবর। তবে এই ভূকম্পনের জেরে সুনামির কোনও সম্ভাবনা নেই বলে জানা গিয়েছে। 

বিপর্যয় মোকাবিলা পর্ষদের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সকালে প্রাথমিকভাবে যে ভূকম্পনটি অনুভূত হয়েছে ম্বোন, কাইরাতু-র মতো শহরগুলিতে, সেইসময়ে প্রাথমিকভাবে ভূপম্পনের মাত্রা রিখটার স্কেলে ছিল ৬.৮। ভূমিকম্পনের জেরে আম্বোন এলাকায় একটি বিশ্ববিদ্যালয় ভবন সামান্য ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে খবর। পাশাপাশি ভূমিকম্পের উৎসস্থল এলাকা থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত আম্বোনের একটি সেতুতেও ফাটল ধরেছে বলে খবর। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া কতকগুলি পোস্টে দেখা গিয়েছে, প্রাদেশিক রাজধামী অ্যাম্বোনের আল আনশোর ইসলামিক বোর্ডিং স্কুলের মেঝেতে চেয়ার-টেবিল ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে। এবং দেওয়ার প্লাস্টার খসে স্তূপাকারে পড়ে রয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও ক্ষয়ক্ষতির খবর প্রকাশ্যে আসেনি। 

আরও পড়ুন- আগুন নেভাতে নয়া কৌশল, দমকলের হাতে এল অত্যাধুনিক ফায়ার বল, দেখুন ভিডিও

আরও পড়ুন- গত ১১১ বছরে এই পরিমাণ বৃষ্টিপাত হয়নি, বর্ষাশেষে এই রাজ্য প্রত্যক্ষ করল রেকর্ড বর্ষণ

আরও পড়ুন- খোলা স্থানে শৌচকর্ম, পিটিয়ে মেরে ফেলা হল দুই দলিত শিশুকে, পুলিশের জালে অভিযুক্ত

প্রসঙ্গত, প্রথম থেকে ইন্দোনেশিয়া একটি অত্যন্ত ভূমিকম্পপ্রবণ এলাকা বলে খ্যাত। প্যাসিফিক রিং অব ফায়ারে অবস্থানের দরুণ এখানকার মানুষ বহুবারই প্রবল ভূকম্পন এবং সুনামির ভয়াল রূপ প্রত্যক্ষ করেছেন। এখনও পর্যন্ত ২০০৪ সালে ঘটে যাওয়া সুমাত্রা দ্বীপের সুনামির কথা এখনও সকলের স্মৃতিতে অমলীন।