করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মহামারীর আকার নেওয়ার জন্য চিন আর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পাশাপাশি তোপ দেগে তিনি আপাতত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুদান স্থগিত রাখার হুমকিও দিয়েছেন। তাতে রীতিমত সংকটে পড়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কারণ এই সংস্থার মোট অনুদানের প্রায় ১৪ শতাংশই আসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে কিছুটা আস্বস্ত করেছেন চিনের প্রেসিডেন্ট সি জিংপিং। বাড়তি তিন কোটি টাকা অনুদান দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে বেজিং। 


চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র জে শুয়াং বলেছেন বিশ্ব জুড়ে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই, ত্রাণ আর উন্নয়নশীল দেশগুলির পাশে দাঁড়াতে চিন সরকার বাড়তি ৩০ মিলিয়ার মার্কিন ডলার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। চিনের জনগণ ও সরকার যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওপর পূর্ণ আস্থা রেখেছে তাও স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। 


বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে দেওয়া অনুদানের তালিকায় চিনের নাম বরাবরই কিছুটা পিছনে। চিনের আগে রয়েছে ভারত ও পাকিস্তানের নাম। কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আর্থিক সাহায্য বন্ধ করে দেওয়ায় বেশ কিছুটা বিপাকে পড়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট তাঁর সিদ্ধান্ত আরও একবার বিবেচনা করে দেখবেন বলেও আশা প্রকাশ করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান। তবে বিশেষজ্ঞদের অনুমান চিন আর্থিক অনুদান বাড়িয়ে দেওয়ায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কিছুটা হলেও সুবিধে হবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার। বিশেষজ্ঞদের আরও অনুমান নিজের দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে ব্যর্থ ট্রাম্প। প্রথম দিকে তিনি এই সংক্রমণকে তেমন গুরুত্ব দেননি। তাই পরবর্তীকালে প্রায় মৃত্যুপুরীর চেহারা নিয়েছে নিউ ইয়র্ক। তাই নিজের ব্যর্থতা ঢাকতেই সময়মত মহামারী খবর না দেওয়া ও চিনকে আড়াল করার অভিযোগ তুলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুদান বন্ধ করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। 

আরও পড়ুনঃ করোনাভাইরাসের আক্রমণের হাত থেকে কবে রেহাই মিলবে, কী বললেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান ...

আরও পড়ুনঃ ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক থেকে কিমের দাম্পত্য, দেখুন উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্র প্রধানের বর্ণময় জীবনের ছবি ...

আরও পড়ুনঃ করোনা যোদ্ধা ভারতীয় বংশোদ্ভূত ভারতীয় চিকিৎসককে সম্মান, ভাইরাল ভিডিও পোস্ট আদিল হুসেনের ...