উচ্চতা প্রায় ৩০০ মিটার বা ৯৮০ ফুট। চিনের অন্যতম উচ্চতম ভবন হল এই ৭২ তলবিশিষ্ট এসইজি প্লাজা (SEG Plaza)। মঙ্গলবার এই আকাশচুম্বী বহুতলই তীব্র আতঙ্ক সৃষ্টি করল চিনের দক্ষিণ-পূর্ব অংশের শেনজেন প্রদেশের শেনজেন শহরে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, এদিন স্থানীয় সময় দুপুর ১ টা নাদাগ হঠাৎই রহস্যময় কারণে থরথর করে কাঁপতে শুরু করে গোটা এসইজি প্লাজা ভবন। ২০০০ সালে এই বহতল তৈরির কাজ শেষ হয়েছিল। তারপর থেকে এই টাওয়ার চিনের অন্যতম প্রধান ইলেকট্রনিক্স বাজার হিসাবে পরিচিত। পাশাপাশি ওই ভবনে বেশ কয়েকটি সংস্থার অফিসও রয়েছে। আচমকা, কাঁপতে থাকায় ভিতরের থাকা সমস্ত ব্যক্তিবর্গকে সেখান থেকে বের করে দেওয়া হয়। ভবনটি থেকে প্রাণভয়ে কাতারে কাতারে মানুষকে বেরিয়ে আসতে দেখা গিয়েছে। আতঙ্কে পথচারীরাও বাড়িটির দিকে নজর রাখতে রাখতে নিরাপদ স্থানের উদ্দেশ্যে দৌড়তে থাকেন। দুপুর আড়াইটা নাগাদ, ভবনটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

কিন্তু, কেন এভাবে কেঁপে উঠল এসইজি প্লাজা? সেই রহস্যের সমাধান এদিন রাত পর্যন্ত হয়নি। শহরের বিপর্যয় মোকাবিলা বিভাগ, টাওয়ারটি কেঁপে ওঠার কারণ খতিয়ে দেখছেন। তবে, কোনও বহুতলকে এইভাবে কাঁপতে দেখা যায়, সাধারণত ভূমিকম্প হলে। কিন্তু, শেনজেনের বিভিন্ন ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রগুলির তথ্য পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, শহরে কেন, আশপাশে কোনও এলাকাতেই এদিন উল্লেখযোগ্য মানের ভূমিকম্প হয়নি। শেষজেন শহরের লোকসংখ্যা ১ কোটি ২০ লক্ষেরও বেশি। এসইজি প্লাজা একেবারে শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত। আপাতত, যেরকম বিপজ্জন অবস্থায় আছে ভবনটি, তাতে শহর কর্তৃপক্ষ কীভাবে এর মোকাবিলা করবে, সেটাই দেখার।