বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে মারণ করোনা ভাইরাস। এখনও পর্যন্ত পৃথিবীর ১২০টি দেশে কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত মানুষের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। এই অবস্থায় করোনা ভাইরাসকে বিশ্বজুড়ে মহামারী ঘোষণা করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু। 

আরও পড়ুন: রাজকীয় ভঙ্গিতে হেঁটে যাচ্ছেন বাঘমামা, পর্যটকদের ক্যামেরাবন্দি হলেন দক্ষিণ রায়

বুধবার পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১ লক্ষ ২৪ হাজার ৬৬০ জন। এখনও পর্যবন্ত প্রাণ গিয়েছে ৪,৫৮৫ জনের। এরমধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৩১১ জনের। আইসিইউতে চিকিৎসা চলছে ৫,৮৯৯ জনের। এমন পরিস্থিতিতে বুধবার করোনাকে বিশ্বজুড়ে মহামারী ঘোষণা করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু-র প্রধান ডক্টর টেড্রোস অ্যাধহানম গেব্রিয়েসুস। 

 

 

ডক্টর টেড্রোস অ্যাধহানম গেব্রিয়েসুস বলেন, "গত ২ সপ্তাহে চিনের বাইরে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ গুণ বেড়েছে। ভাইরাস সংক্রমণের মাত্রা যথেষ্ট উদ্বেগজনক।" পাশাপাশি গেব্রিয়েসুস আরও বলেন, "একে মহামারী ঘোষণার অর্থ এই নয় যে, বিশ্বব্যাপী দেশগুলোর কী করা উচিত সেসম্পর্কে হু নিজের পরামর্শ পরবর্তিন করেছে। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি দেশ প্রমাণ করেছে, এই ভাইরাসকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়।  তাই এখন বাকি দেশগুলোর কাছে চ্যালেঞ্জ যাতে তারাও এটিকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।" 

 

 

তিনি সব দেশের সরকারকে জরুরী ও আগ্রাসী পদক্ষেপের মাধ্যে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণের কথা বলেন। এর আগে গত ৩১ জানুয়ারি করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্বজুড়ে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু। দেবার একেবারে করোনাকে মহামারী ঘোষণা করা হল। সাধারণত যদি কোনও রোগ বা সংক্রমণ যদি একাধিক মহাদেশ বা বিশাল ভৌগলিক এলাকাজুড়ি ছড়িয়ে পড়ে তখন তাকে মহামারী বলা হয়। 

আরও পড়ুন: এইডস-কে জয়, চিকিৎসাশাস্ত্রে নয়া দিশা দেখালেন ভারতীয় গবেষক

এদিকে ক্রমেই ইউরোপের ইতালি ও মধ্যপ্রাচ্যের ইরানে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের জেরে পরিস্থিতির চরম অবনতি হয়েছে। বুধবার পর্যন্ত ইতালিতে মোট সংক্রমমের সংখ্যা ১২,৪৬২। মৃত্যু হয়েছে ৮২৭ জনের। তারমধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১৯৬ জনের। অন্যদিকে ইরানে আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ছাড়িয়েছে। বুধবার নতুন করে সংক্রমমের খবর পাওয়া গেছে ৯৯৮ জনের শরীরে। মারা গিয়েছেন ৩৫৪ জন। এদের মধ্যএ গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৬৩ জনের।