সিডনিতে ভারত অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে সিরিজও আদানি গ্রুপের কয়লা খনি নিয়ে প্রতিবাদ। শুক্রবার মাঠের বাইরে ও ভিরতে  একদল মানুষ প্রতিবাদ জানান। মাঠের বাইরে যাঁরা প্রতিবাদ দেখাচ্ছিলেন  তাঁদের প্রায় সকলের পোষাকেই লেখা ছিল স্টপ আদানি। আর মাঠের ভিতরে প্রতিবাদীদের হাতে ছিল পোস্টার। সেখানে লেখা ছিল কেন ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্ক সাধারণ মানুষের টাকা থেকে আদানিকে ১০০ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে। 


প্রতিবাদীরা আদানিদের বিষয় প্রদর্শণ সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইছিলেন। আর সেই কারণে এক প্রতিবাদী আদানিদের বিরুদ্ধে লেখা পোস্টার নিয়ে বাইশ গজের অনেকটা কাছে চলে যান। সেই সময় মাঠে উপস্থিত নিরাপত্তা রক্ষীরা তাঁকে সরিয়ে দেন। বাকি দুই প্রতিবাদীকে মাঠে নামার আগেই আটকে দেন প্রতিবাদীরা। তবে মাঠের বাইরে থাকা প্রতিবাদীরা জানিয়েছেন যাঁরা আর ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়ার খেলা দেখছে তাঁদের এটা জানার অধিকার রয়েছে করদাতাদের টাকা কী ভাবে স্টেটব্যাঙ্ক আদানিদের হাতে তুলে দিচ্ছে। আদানিদের প্রকল্পটি পরিবেশের পক্ষেও ক্ষতিকর বলে জানান দাবি করেছেন প্রতিবাদীরা। 

করোনাভাইরাসের এই মহামারির কারণ মাঠের মাত্র ৫০ শতাংশ দর্শকের উপস্থিতিতে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া এক দিনের ক্রিকেট খলছে। মাঠের দর্শক সংখ্যা অল্প হলেও মাঠের নিরাপত্তা ছিল কড়া। কিন্তু তারপেরও কী করে প্রতিবাদীরা সকলের চোখ এড়িয়ে মাঠে ঢুকল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। যদিও প্রাক্তন ক্রিকেটার অ্য়াডাম গিলক্রিস্ট জানিয়েছেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে কর্তৃব্যরত নিরাপত্তারক্ষীরা। আর নিরাপত্তা বাড়ানোর কোনও প্রয়োজন নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি।