সকাল সকাল স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের ওপর ছুরি নিয়ে হামলা! এমনই ভয়াবহ ঘটনার সাক্ষী থাকল জাপান। কাওয়াসাকির দমকল বিভাগ থেকে সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানানো হয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল ৭ টা ৪৪ নাগাদ অতর্কিতে এক ব্যক্তি ছুরি নিয়ে হামলা চালায় স্কুলের দিকে রওনা হওয়া শিশুদের ওপরে। হামলায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে একের পর এক শিশু। 

এর পরে নিজেকেই আঘাত করেন এই দুষ্কৃতী। মারাও যায় সো। জাপান পুলিশ সূত্রের খবর, অন্তত ১৬ জন এই ঘটনায় ভয়াবহ ভাবে আহত হয়েছে। মারা গিয়েছে দুজন, তাদের মধ্যে একজন মেয়ে। 

ঘটনার কার্যকারণ এখনও খুঁজে পায়নি তদন্তকারী দল।  স্থানীয় টিভি চ্যানেলের ফুটেছে দেখা গিয়েছে, ঘটনা ঘটার কিছুক্ষণের মধ্যেই আপৎকালীন নিরাপত্তাবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করে। 

জাপান পৃথিবীর সব থেকে কম অপরাধ প্রবণ দেশ বলে চিহ্নিত।  কিন্তু দেখা গিয়েছে শেষ কয়েক বছরে জাপানে ও এই ধরনের অপরাধের পরিমাণ বাড়ছে।  ২০১৬ সালে একটি মানসিক হাসপাতাল একই ধরনের আঘাতে ছিন্নভিন্ন করে দেওয়া হয় ১৯ জনকে।  ছুরি চালিয়েছিল সংস্থার এক কর্মচারী। তার দাবি ছিল সে উন্মাদনা মুক্ত করতে চায় এই ব্যক্তিদের।
 
এরও আগে ২০০৮ সালে টোকিওয় একটি ভরা বাজারের ট্রাক ঢুকিয়ে দেয় একদল দুষ্কৃতী। চলে অতর্কিত ছুরিকাঘাত।