কোনটা কুকুর আর কোনটা ভালুক তার পার্থক্যই বুঝলেন না মালয়েশিয়ার এক সঙ্গীতশিল্পী। তাই কুকুর ভেবে বাড়িতেই পোষ্য হিসাবে রেখেছিলেন একটি ভালুক। আর বেআইনিভাবে বাড়িতে ভালুক পোষার অপরাধে গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁকে।

সম্প্রতি এক ব্যক্তি ওই গায়িকার পোষা ভালুকটির একটি ভিডিও প্রকাশ করে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওটি রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পরই ওঠে বিতর্ক। আর তখনই মালয়েশিয়ার ওয়াইল্ড লাইফ অ্যান্ড ন্যাশনাল পার্ক-এর কর্তৃপক্ষ খবর পেয়ে হানা দেয় ওই গায়িকার বাড়িতে। এরপর ভালুক ছানাটিকে উদ্ধার করেন তাঁরা এবং কুয়ালালাম পুলিশ গ্রেফতার করে ওই গায়িকাকে।

কুকুর ভেবে ভালুক পুষে গ্রেফতার জনপ্রিয় গায়িকা

কিন্তু জেরার মুখে অদ্ভুত কথা বলেছেন জারিৎ সোফিয়া ইয়াসিন নামে ওই সঙ্গীতশিল্পী।  তিনি জানান ওটি যে একটি ভালুক তা কোনওভাবোই বুঝতে পারেননি তিনি। বরং, সেটিকে একটি কুকুর ছানা ভেবেই বাড়িতে রেখেছিলেন তিনি। একটি সক্ষাতকারে তিনি জানিয়েছেন যে, রাতের অন্ধকারে ওই ছানাটিকে রাস্তা থেকে কুড়িয়ে পেয়েছেন তিনি। আপাতভাবে দেখে সেটিকে কুকুর বলেি মনে করেছিলেন তিনি। আর সেই কারণেই বাড়ি নিয়ে আসেন সেটিকে। তিনি আরও বলেন যে, বন্যপ্রাণ আইন সম্পর্কে তিনি যথেষ্টই ওয়াকিবহাল। বন্যপ্রাণ আইন ভঙ্গ করার কোনও অভিপ্রায়ই তাঁর ছিল না বলেও জানিয়েছেন তিনি।