ভালবাসা কোনও জাত-পাত-ধর্মের ভেদাভেদ মানে না। মানে না কোনও লিঙ্গভেদও। দু'জন পুরুষ কিংবা মহিলাও যে একে অপরের প্রতি প্রেমে মগ্ন হতে পারেন তার স্বীকৃতি ইতিমধ্যেই দিয়ে দিয়েছে ভারতের শীর্ষ আদালত। এই সম লিঙ্গের ভালবাসার কাহিনী ফুটে উঠেছে রূপোলি পর্দাতেও।

চলতি বছরে মুক্তিপ্রাপ্ত বলিউড ছবি 'এক লড়কি কো দেখা তো এয়সা লাগা' ছবিতেও ফুটে উঠেছিল দু'জন মেয়ের ভালবাসার কাহিনী। আর এবার সেই গল্পই ফুটে উঠেছে বাস্তবের মাটিতে। তবে একে গল্প না বলে বাস্তবের রূপকথা বলা যেতে পারে। 

 

তবে এই রূপকথার দুই রানির একজন ভারতীয় হিন্দু আর অপরজন পাকিস্তানি মুসলিম। দুই নারীর প্রেম কাহিনীতে এখন মজে গোটা নেট দুনিয়া। তবে তার অনেক আগে থেকে তাঁরা একে অপরের প্রেমে মজে রয়েছেন। সম্প্রতি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে তাঁদের ফটোশ্যুটের কিছু ছবি, আর তাতেই রাতারাতি ভাইরাল হয়েছে তাঁদের প্রেম-কাহিনী। 

 

ভারতীয় বংশোদ্ভুত অঞ্জলি চক্র এবং পাক বংশোদ্ভুত সুন্দাস মালিকের প্রেম এক বছর পার করল। তাই প্রেমের বর্ষপূর্তিকে উদযাপন করতেই এই বিশেষ ফটোশ্যুটের সিদ্ধান্ত নেন যুগলে। বর্তমানে তাঁরা মার্কিন যুক্ররাষ্ট্রের বাসিন্দা। নিউ ইয়র্কে করা সেই ফটো শ্যুটে উঠে এসেছে তাঁদের ভালবাসার আখ্যান। কখনও বৃষ্টিভেজা মেঘলা দিনে শাড়ি পরে আবার কখনও হলুদ-মেরুন লেহেঙ্গায় নিজেদের সাজিয়ে অন্তরঙ্গভাবে ধরা দিয়েছেন ক্যামেরার সামনে। আর এইসব ছবি রাতারাতি মন কেড়েছে নেটিজেনদের।

 

অঞ্জলি এবং সুন্দাস নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে একে অপরের জন্য প্রেমের বর্ষপূর্তির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তাঁদের জীবনে এই দিনটি বার বার ফিরে আসুক এটাই কামনা তাঁদের।