পোলিশ আইন প্রণেতারা সেদেশের যুবক-যুবতীদের জন্য নিয়ে আসতে চলেছে এক নয়া আইন ব্যবস্থা। বয়স যদি হয় ২৬ বছরের নীচে তাহলে এই দেশের যুবক যুবতীদের কোনও আয়কর দিতে হবে না। 

সম্প্রতি সেদেশের সংসদে প্রস্তাব করা হয়েছে এমনই এক আইনের। সূত্রের খবর, সংসদের নিম্নকক্ষে অধিকাংশ সদস্যদের ভোট পেয়ে প্রস্তাবটি পাশও হয়ে গিয়েছে। এবার সেটি উচ্চকক্ষে অনুমোদন পাওয়ার অপেক্ষায়। আর উচ্চকক্ষের অনুমোদন পেলেই সেটি আইনে পরিণত হবে। মনে করা হচ্ছে সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগস্ট মাসের ১ তারিখ থেকেই এই আইনটি আইনে পরিণত হবে। আরও বলা হচ্ছে এই প্রস্তাবটি আইনে পরিণত হলে এর থেকে সুবিধা পাবেন সেদেশের প্রায় দুই মিলিয়ন যুবক-যুবতী। তবে সেক্ষেত্রে তাঁদের বার্ষিক আয়ের পরিমাণ ৮৫,০০০ জাইলট তথা ২২,৫০০ মার্কিন ডলারের (ভারতীয় মূদ্রায় যার মূল্য প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা) বেশি হবে না। 

আর এই খবরের জেরে সেদেশে রীতিমতো সাড়া পড়ে গিয়েছে। এর অন্যতম কারণ হিসাবে বলা হচ্ছে, পোলান্ড চাইছে তাঁদের দেশের কর্মঠ যুবক-যুবতীরা ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্যান্য দেশগুলিতেও যাতে আরও ভাল বেতনের চাকরির সুযোগ পায়। 

প্রসঙ্গত,  ২০১৯-এর বাজেটে আয়করের হারে খানিকটা পরিবর্তন আশা করেছিল এদেশের সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষ। কিন্তু আয়করে সেই অর্থে কোনও পরিবর্তন না হওয়ায় কার্যত আশাহত হয়েছেন দেশের মধ্যবিত্ত সমাজ। তারই মধ্যে পোলান্ডের এই ঘটনা কার্যত সাড়া ফেলে দিয়েছে।