বিশ্বের সবথেকে 'আনসেফ' বা 'অ-নিরাপদ' কোভিড ভ্যাকসিন হল চিনের তৈরি করোনাভাইরাস টিকা, সিনোফার্ম। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনই গুরুতর অভিযোগ করেন সাংহাই-এর এক ভ্যাকসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার তাও লিনা। তাঁর দাবি এই ভ্যাকসিনের ৭৩টি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে। তবে এই অভিযোগ জানানোর কিছু পরই তিনি সেই পোস্টটি মুছেও ফেলেন। আন্তর্জাতিক সংবাদমাদ্যম 'ডেইলি মেইল'এর এক প্রতিবেদনে এমনটাই বলা হয়েছে।

চিনা সোশ্য়াল মিডিয়া ওয়েইবো-তে করা একটি পোস্টে ডাক্তার তাও লিনা জানিয়েছিলেন, সিনোফার্ম কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন দিলে, ইনজেকশন দেওয়ার জায়গার চারপাশে ব্যথা, মাথাব্যথা, উচ্চ রক্তচাপ, দৃষ্টিশক্তি এবং স্বাদানুভূতি হ্রাস এবং মূত্রত্যাগের অসংলগ্নতা-র মতো ৭৩টি গুরুতর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। তবে তাঁর এই পোস্ট চিনে ভাইরাল হতেই ওই ভ্যাকসিন বিশেষজ্ঞ তাঁর 'অনর্থক' মন্তব্যের জন্য দেশ, তাঁর সহকর্মী এবং দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম 'গ্লোবাল টাইমস'কে তিনি বলেছেন, তিনি কখনই বলেননি যে 'নিষ্ক্রিয় ভ্যাকসিন'গুলির সুরক্ষা এবং কার্যকারিতা নেই। বরং চিনে তৈরি নিষ্ক্রিয় ভ্যাকসিনগুলি সম্পর্কে জনসাধারণের উদ্বেগকে উড়িয়ে দিতে একাধিক নিবন্ধে তিনি চিনা ভ্যাকসিন নিরাপদ বলে জানিয়েছেন।

সিনোভফার্ম হাতে ডাক্তার তাও লিনা

'গ্লোবাল টাইমস'-এর দাবি, ডাক্তার লিনা বলতে চেয়েছিলেন টিকাটির এতগুলি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছিল, যা নিষ্ক্রিয় করে তাকে নিরাপদ করেছে চিনা কর্তৃপক্ষ। মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলি তাদের নিবন্ধে ডাক্তার লিনা-র মন্তব্যের বিপরীত অর্থ করার উদ্দেশ্যে তাঁর মন্তব্যটিকে বিকৃত করেছে। গ্লোবাল টাইমস-এর নিবন্দে আরও দাবি করা হয়েছে, তাদের সমালোচকরা সিনোফর্ম ভ্যাকসিনের বিরুদ্ধে যে দাবিগুলি করেছে, সেগুলিকে অস্বীকার করে ব্যাঙ্গার্থে ওই কথাগুলি বলেছিলেন তাদের দেশের ওই ভ্যাকসিন বিশেষজ্ঞ।

ডাক্তার তাও লিনা-র সেই ভাইরাল ওয়েইবো পোস্ট , যা এখন তচিনি মুছে দিয়েছেন

তবে এই অস্বীকার, কতটা ডাক্তার লিনা-র নিজের তরফ থেকে আর কতটা সরকারি চাপের মুখে, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। এর আগে বারবারই দেখা গিয়েছে, সরকার বা সরকারি কোনও উদ্যোগের সমালোচনা করলেই সএই ব্যক্তির মুখ বন্ধ করতে উঠে-পড়ে লেগেছে সরকার। করোনা মহামারির কথা প্রথম জানিয়েছিলেন যে চিনা ডাক্তার, তাঁকেও জেল বন্দি করেছিল চিন সরকার। পড়ে তিনি নিজেই করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান। সম্প্রতি দেশএর অর্থনৈতিক নীতির সমালোচনা করার পর থেকে দেখা মিলছে না আলিবাবা সংস্থার মালিক জ্যাক মা-কেও।    

তাই, ডাক্তার লিনা-র এই সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট এবং পরে তা অস্বীকার করে দুঃখপ্রকাশ ও পোস্টটি মুছে ফেলার ঘটনায় সিনোফার্ম টিকা নিয়ে নিরাপত্তাজনিত সংশয় তৈরি হয়েছে। চিন সরকার সিনোফার্ম ভ্যাকসিনকে শর্তসাপেক্ষে তাদের দেশে ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। এই কোভিড টিকাটি করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ৭৯ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকরী বলে দাবি করা হয়েছে। চিন ছাড়াও, বাংলাদেশ, রাশিয়া-র মতো বেশ কয়েকটি দেশ সিনোফার্ম টিকা সংগ্রহের জন্য প্রাক-চুক্তি করেছে।