প্রায় পাঁচ মাস ধরে ভয়াবহ দাবানলে জ্বলতে থাকা অস্ট্রেলিয়ায় এখন শুরু হয়েছে প্রবল বৃষ্টিপাত। কিছু এলাকায় জল জমে বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। যেকোনও সময় সাইক্লোন আঘাত হানতে পারে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ফের রাগাকে নিয়ে মস্করা নমোর, ভরা সংসদে বললেন 'টিউব লাইট'

কুইন্সল্যান্ডের দিকে ধেয়ে আসছে প্রবল ঝড়, এমনটাই পূর্বাভাস দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার আবহাওয়া মন্ত্রক। এছাড়াও নিউ সাউথ ওয়েলসের অন্তত ২০টি এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে বন্যা সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

 

দেশটির পূর্ব দিক থেকে আসা উষ্ণ আর্দ্র বাতাস এই বৃষ্টি নামাচ্ছে। সেই কারণেই নিউ সাউথ ওয়েলসের উত্তর-পূর্ব উপকূলে ভারী বৃষ্টির আশা করা হচ্ছে। এরপর তা দীক্ষাণের দিকে ছড়িয়ে পড়তে চলেছে। 

এদিকে পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার কিম্বারলি উপকূলের গ্রীষ্মকালীন নিম্নচাপ তৃতীয় মাত্রার সাইক্লোনে পরিণত হয়ে আগামী শনিবার পিলবারা অঞ্চলে আঘাত হানতে পারে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ল যাত্রীবাহী বিমান, হয়ে গেল তিন টুকরো

ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে অস্ট্রেলিয়ার কিছু কিছু অঞ্চলে দাবানলের তীব্রতা কমেছে। দেশটিতে গত সেপ্টেম্বর থেকে ভয়াবহ দাবানলে এ পর্যন্ত অন্তত ১ কোটি ১৭ লাখ হেক্টর জমির গাছপালা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আগুনে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ৩৩ জন। ধারণা করা হচ্ছে, অস্ট্রেলিয়ার দাবানলে অন্তত একশ কোটি প্রাণী মারা গেছে। ধ্বংস হয়ে গেছে অন্তত আড়াই হাজার বাড়িঘর।

 

 

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কিছু অঞ্চলে বৃষ্টিপাত হলেও দাবানলের হুমকি এখনও শেষ হয়নি। নিউ সাউথ ওয়েলস, ভিক্টোরিয়ার মতো জনবহুল রাজ্যের অন্তত ৬০টি স্থানে দাবানলের আগুন জ্বলছে, এর মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি এখনও নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি।