Asianet News Bangla

থাকছে না লোহার রড, প্রাচীন ঐতিহ্য মেনেই হচ্ছে আরব-ভূমের প্রথম হিন্দু মন্দির


সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে তৈরি হচ্ছে সেই দেশের প্রথম হিন্দু মন্দির।

তাতে স্টিল বা লোহা থেকে তৈরি সামগ্রী ব্যবহার করা হবে না।

তৈরি হবে ভারতের মন্দির স্থাপত্যের ঐতিহ্য মেনে।

বছর দুয়েক নরেন্দ্র মোদী এই মন্দিরের শিলান্যাস করেছিলেন।

UAE won't use steel, iron to construct its first Hindu temple
Author
Kolkata, First Published Feb 15, 2020, 5:29 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সংযুক্ত আরব আমিরশাহির রাজধানী আবুধাবিতে তৈরি হচ্ছে সেই দেশের প্রথম হিন্দু মন্দির। কিন্তু তাতে স্টিল বা লোহা থেকে তৈরি সামগ্রী ব্যবহার করা হবে না। ভারতে মন্দির স্থাপত্যের ঐতিহ্য মেনেই এটি নির্মিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মন্দির কমিটির কর্মকর্তারা। বছর দুয়েক আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দুবাই অপেরা হাউস থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত আরব আমিরাসাহির রাজধানীতে বোচাসন্ন্যাসী শ্রী অক্ষর পুরুষোত্তম স্বামীনারায়ণ সংস্থ বা বিএপিএস মন্দিরের শিলান্যাস করেছিলেন। চলতি সপ্তাহে এর ভিত গড়ার জন্য প্রথম ফ্লাই অ্যাশ কংক্রিট ফেলা হয়েছে। এই বিশাল মাইলফলক প্রত্যক্ষ করতে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী ভারতীয় মন্দির প্রাঙ্গনে জড়ো হয়েছিলেন।

প্রায় ৩০০০ ঘনমিটারের ফ্লাই অ্যাশ কংক্রিট ঢালা হয় মন্দিরে ভিতের জন্য। মন্দির কমিটির মুখপাত্র অশোক কোটিচা জানিয়েছেন আরব আমিরশাহিতে এর আগে একসঙ্গে এত পরিমাণ ফ্লাই অ্যাশ আগে ঢালা হয়নি। সাধারণত, বাড়ি তৈরির ভিতে কংক্রিট এবং স্টিলের মিশ্রণ থাকে। কিন্তু ভারতে ঐতিহ্যবাহী মন্দিরের স্থাপত্যরীতি অনুসারে ভিত শক্ত করতে কোনও ইস্পাত বা লোহা ব্যবহার করা হবে না। তার বদলে কংক্রিটকে শক্তিশালী করতে ফ্লাই অ্যাশ ব্যবহার করা হচ্ছে। পুরো মন্দিরটিই স্টিল বা লৌহঘটিত সামগ্রী ছাড়াই একাধিক জিগস-র টুকরোর মতো আলাদা আলাদা করে তৈরি করে জুড়ে দেওয়া হবে। এর জন্য ভারতে প্রায় ৩,০০০ কারিগর ৫০০০ টন ইতালিয়ান কারারার মার্বেল পাথরে বিভিন্ন দেবদেবীর মূর্তি খোদাই করার কাজ করে চলেছেন। মন্দিরের বাইরেটা তৈরি হবে ১২,২৫০ টনের গোলাপী রঙের বেলেপাথর দিয়ে।

চলতি সপ্তাহেই শুরু হল এই মন্দির নির্মাণের কাজ। সেই উপলক্ষ্যে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন কতরা হয়েছিল। তা পরিচালনা করেন বিএপিএস স্বামীনারায়ণ মন্দির গ্রুপের প্রবীনতম সাধক ব্রহ্মবিহারী দাস। উপস্থিত ছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত পবন কাপুর এবং দুবাই-এর ভারতীয় কনসাল জেনারেল বিপুল-সহ ভারতীয় ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট সদস্য। এছাড়া ছিলেন দুবাই ও আবুধাবির কমিউনিটি ডেভলপমেন্ট অথরিটি বা সিডিএ-র সদস্যরা। ইউএই-র সরকারের পক্ষ থেকে ধর্মীয় পর্যবেক্ষক, তথা দুবাইয়ের সিডিএ ওমর আল মুথান্না বলেছেন দেশের সঙ্গে একাত্ম বোধ করার অন্যতম উপায় ধর্ম। সংযুক্ত আরব আমিরাশি-কে তাঁরা ভারতীয়দের ঘর হিসাবেই গড়ে তুলতে চান।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios