Asianet News BanglaAsianet News Bangla

করোনা নিয়ে তথ্য গোপন করেছে চিন, বন্ধু 'হু'-এর স্বীকারোক্তিতে এবার চাপে জিনপিং সরকার

  • প্রথম দিকে করোনা সংক্রমণের কথা জানায়নি চিন
  • এবার কার্যত স্বীকার করে নিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
  •  হু-এর ওয়েবসাইট থেকে পুরনো তথ্য সরানো হয়েছে
  • বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডিগবাজিতে বিপাকে বেজিং
WHO Takes Uturn Admits China Did Not Report COVID 19 Outbreak in Initial Stages BSS
Author
Kolkata, First Published Jul 4, 2020, 8:25 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বিশ্ব জুড়ে অতিমারীর পরিস্থিতি তৈরি করেছে করোনাভাইরাস। কিছুতেই এই সংক্রমণেক নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। প্রতিদিনই বিস্বের নানা প্রান্তে হাজার, হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন এই মারণ ভাইরাসে। করোনা নিয়ে প্রথম থেকেই আমেরিকা সহ বিশ্বের একাধিক দেশ চিনের দিকে আঙ্গুল তুলে আসছিল। কিন্তু বরাবরই সেই অভিযোগকে উড়িয়ে দিয়ে চিনের পাশেই দাঁড়াতে দেখা গেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে। কিন্তু হঠাৎ করেই এবার নিজের অবস্থান থেকে একেবারে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা 'হু'। সঠিক সময়ে চিন মহামারী সংক্রান্ত তথ্য দেয়নি, আমেরিক, ফ্রান্সের মত দেশের তোলা এই অভিযোগ  অবশেষে কার্যত মেনে নিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এক মার্কিন সাপ্তাহিক পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিজেদের ওয়েবসাইটে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত খবরের ঘটনাক্রমে পরিবর্তন করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। পত্রিকার দাবি, হু-এর ওয়েবসাইট থেকে একটা তথ্য প্রত্যাহার করা হয়েছে যেখানে আগে বলা ছিল-- উহানে নিউমোনিয়া সংক্রমণের রিপোর্ট করেছে চিন।

করোনা ভাইরাস নিয়ে প্রথম দিকে কোনও তথ্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে দেয়নি চিন। ওয়েবসাইটের লেখা দেখে ধারণ করা হচ্ছে অবশেষে সেকথা স্বীকার করে নিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ওয়েবসাইটে লেখা রয়েছে, চিনের  জিনপিং সরকার ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর উহান প্রদেশে নিউমোনিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে বলে জানিয়েছিল। সেটা করোনা নামক ভাইরাস থেকে হচ্ছে বলে এই টুকু তথ্যই দেওয়া হয়েছিল সেখানে। কিন্তু সেটা যে মারাত্মক আকার নিতে শুরু করেছে তা জানায়নি জিনপিং প্রশাসন।

করোনা সংক্রমণের তথ্য গোপন করেছে চিন সেই অভিযোগ আমেরিকা সহ একাধিক দেশ করে চলেছে। এই নিয়ে হু-র প্রধানকে আগেও আক্রমণ করেছে আমেরিকা। এমনকী চিনের বিরুদ্ধে মুখ না খোলায় হু-কে আর্থিক সাহায্য পর্যন্ত বন্ধ করে দিয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও সেই ঘাটতি জিনপিং অনুদান দিয়ে ভরিয়ে দিয়েছেন।

মার্কিন ওই পত্রিকা জানিয়েছে, গতমাসের মাঝামাঝি সময়ে প্রকাশিত হওয়া মার্কিন হাউস বিদেশ বিষয়ক কমিটি রিপাবলিকান্স-এর অন্তর্বর্তী রিপোর্টে বলা হয়েছিল, উহানে শুরুর দিকে করোনা সংক্রমণের খবর একেবারেই জানায়নি চিন। এরপরই, অত্যন্ত গোপনে "টাইমলাইন অফ হু-জ রেসপন্স টু কোভিড-১৯" শীর্ষক ঘটনাক্রমে মঙ্গলবার এই পরিবর্তন আনে হু।

এর আগে উহানের পুর-স্বাস্থ্য কমিশনের ওয়েবসাইটকে উদ্ধৃত করা চিনা সংবাদমাধ্যমের একটি রিপোর্ট পায় চিনে অবস্থিত হু-এর দফতর। সেখানেই বলা হয়েছিল, উহানে দ্রুতহারে ছড়িয়ে পড়া এক 'ভাইরাল নিউমোনিয়া'-র কথা। আগের বক্তব্যের অর্থ ছিল, চিনা প্রশাসন প্রথম ঘটনার কথা জানিয়েছিল। কিন্তু, পরিবর্তিত বক্তব্যের অর্থ হল হু আসলে চিনা সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে ওই ধারনা তৈরি করেছিল। সরকারিভাবে, হু-কে এই ভাইরাল সংক্রমণের কথা জানানো হয়নি।

অনেকেই মনে করেন, করোনাভাইরাসকে যদি চিন নিজের সীমার মধ্যে নিয়ন্ত্রণ করতে পারত, তাহলে বিশ্বে এমন অতিমারী ছড়িয়ে পড়ত না। চিনের একটি মাত্র ভুলের জন্যই  গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে এই মারণ ভাইরাস। এখনও সেই ভাইরাসের কোনও টিকা আবিস্কার করা যায়নি। এমনকি একাধিক দেশে চরম আকার নিয়েছে করোনা সংক্রমণ। ভারত, আমেরিকা ব্রাজিল, রাশিয়ায় ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios