আইপিএল ২০২০তে পাঞ্জাবের অবিশ্বাস্য ভাবে ঘুরে দাঁড়ালো পাঞ্জাব। এই মুহূর্তে আইপিএলের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা ৩ টি দলকে পরপর ৩ ম্যাচ হারিয়ে দিল লোকেশ রাহুলের দল। যার সুবাদে ১০ ম্যাচ পর ৮ পয়েন্ট নিয়ে এই মুহূর্তে পয়েন্ট টেবিলে ৫ নম্বরে উঠে এলে প্রীতি জিন্টার ফ্র্যাঞ্চাইজি। প্লে অফ নিশ্চিত করতে গেলে বাকি চারটি ম্যাচের চারটিতেই জিততে হবে তাদের। তিনটি জিতলে নির্ভর করতে হবে বাকি দলগুলির খেলার ফলাফলের ওপর। খাদের কিনারায় দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় অবিশ্বাস্য কামব্যাকে রাহুলের পাঞ্জাব শেষ পর্যন্ত প্লে-অফ নিশ্চিত করতে পারে কিনা, সেটাই দেখার অপেক্ষায় ক্রিকেটভক্তরা। 

কাল দুবাইয়ে দিল্লিকে প্রথমে ১৬৪ রানে বেঁধে রাখার পরই অর্ধেক ম্যাচ জেতা হয়ে গিয়েছিল পাঞ্জাবের। শিখর ধাওয়ানের মতো মারকাটারি ব্যাটসম্যান ৬১ বলে ১০৬ রান হাঁকালেও বাকিদের ব্যর্থতাতে দিল্লি এদিন ১৬৪-র বেশি তুলতে পারেনি। টানা দুটি ম্যাচে শতরান করে নিন্দুকদের জবাব দিলেন ধাওয়ান। পাঞ্জাবের হয়ে দারুন বোলিং করে ২ উইকেট নেন মহম্মদ সামি। পরে এই রান তাড়া করে দ্রুত ফেরেন রাহুল। গেইলের ২৯ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলে অশ্বিনের বলে বোল্ড হয়ে ফেরার পর পুরানের সাথে ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট হয়ে ফেরেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল। কিন্তু এর পর পুরানের অর্ধশতরান ও ম্যাক্সওয়েলের ৩৪ রানে ভর করে ১ ওভার বাকি থাকতে ৫ উইকেট ম্যাচ জিতে নেয় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব।

কিংসের হয়ে এদিন সর্বোচ্চ রান নিকোলাস পুরানের। একসময় অশ্বিনের একই ওভারে গেইল ও মায়াঙ্কের রান আউটে পাঞ্জাব চাপে পড়ে যায়। সেখান থেকেই দুর্দান্ত ব্যাটিং করে গতকাল ২৮ বলে ৫৩ রান হাঁকিয়ে জয়ের ভিত তৈরি করে দেন পুরান। আইপিএল ২০২০তে এটি পুরানের দ্বিতীয় অর্ধশতরান। অন্যদিকে গোটা আইপিএলে ব্যাট হাতে ছন্দ খুঁজে পাননি ম্যাক্সওয়েল। কিন্তু কাল অজি ক্রিকেটারের ২৪ বলে ৩৪ রানের দামি ইনিংস পাঞ্জাবের জয় নিশ্চিত করে।