চলতি আইপিএলটা একেবারেই ভালো যাচ্ছে না কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের। প্রথমে বল করে ২০১ রান খরচের পর এদিন রান তাড়া করতে নেমে পাওয়ার প্লেতে ২ উইকেট হারিয়ে সমস্যায় পরে কিংস। সানরাইজার্সের হয়ে অসাধারণ ব্যাটিং করেন তিন বিদেশি ডেভিড ওয়ার্নার, জনি বেয়ারস্টো এবং কেন উইলিয়ামসন। ওপেনিং জুটিতে বিশাল রান তোলে ওয়ার্নার-বেয়ারস্টো। আর এই ওপেনিং পার্টনারশিপই হয়ে দাঁড়ায় ম্যাচের নির্ধারক। 

মহম্মদ শামি থেকে সেলডন কটরেল যেখানে ব্যর্থ সেখানেই বল হাতে সানরাইজার্সকে ধাক্কা দেন কিংস ইলেভেনের তরুণ তুর্কি রবি বিষ্ণোই। আইপিএল ২০২০তে পাঞ্জাবের জার্সিতে প্রথম দিন থেকেই খেলছেন বিষ্ণোই। অনিল কুম্বলে থেকে লোকেশ রাহুলরা অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলা ক্রিকেটারকে নিয়ে কেন বাজি ধরছেন, এদিন হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ম্যাচে বল হাতে বুঝিয়ে দিলেন রবি। তার বোলিংয়ের দৌলতে একসময় যেখানে মনে হচ্ছিল হায়দরাবাদের স্কোর ২৩০ পেরিয়ে যাবে তা একসময় ২০০ এর কমেই আটকানো যাবে বলে মনে করা হচ্ছিল। কিন্তু কেন উইলিয়ামসনের ১০ বলে ২০ রানের ইনিংসের দৌলতে তা গিয়ে দাঁড়ায় ২০১ এ। 

বোলিংয়ে হতাশ করার পর এদিন ব্যাটে সম্পূর্ণ হতাশ করল কিংস ইলেভেন। রাহুলের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে ওয়ার্নারের থ্রো রান আউট হয়ে ৯ রানে ফেরেন মায়াঙ্ক। রাহুল এদিন ১১ রানের বেশি করতে পারেননি। দলকে এরপর একা হাতে টানছিলেন নিকোলাস পুরান। ৬টি চার ও ৭টি ছক্কায় ৭৭ রান হাকিয়ে দলকে লড়াইয়ে টিঁকিয়ে রেখেছিলেন তিনি। আইপিএল ২০২০তে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরি হাঁকালেন ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার পুরান। দুবাইয়ে সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের নির্ভরযোগ্য বাঁ-হাতি এই নজির গড়লেন। কিন্তু উল্টোদিক থেকে বিন্দুমাত্র সাহায্য না পাওয়ায় ব্যর্থ হয়ে যায় তার লড়াই।