রবিবারের ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে রাজস্থানকে হারিয়ে প্লে অফের আরও কাছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। দুবাইয়ে স্টিভ স্মিথের রাজস্থানকে ৬০ রানে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলে ৮ নম্বর থেকে ৪ নম্বরে উঠে এসেছে কলকাতা। সেই সঙ্গে চেন্নাই সুপার কিংস পাঞ্জাবকে হারিয়ে দেওয়ায় একটি বাধা সরে গিয়েছে নাইট বাহিনীর সামনে থেকে। এরপরও নাইটদের প্লে অফে পৌঁছনোর অঙ্কে একাধিক সমীকরণ রয়েছে। 

আজ সন্ধ্যায় আবু ধাবির মাঠে মুখোমুখি হবে বিরাট কোহলির ব্যাঙ্গালোর এবং শ্রেয়স আইয়ারের দিল্লি ক্যাপিটালস। এই ম্যাচে যে জিতবে সে দ্বিতীয় স্থানে উঠে যাবে এবং মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে প্রথম কোয়ালিফায়ার খেলবে। এদিকে এই ম্যাচে দুটি দলের মধ্যে যে কোন দল যদি নির্দিষ্ট একটি ব্যবধানে হারে তাহলে সেই দল প্লে অফের দৌড় থেকে ছিটকে যাবে অর্থাৎ কলকাতার নেট রান রেটের থেকে পিছিয়ে পড়বে। সেক্ষেত্রে হায়দরাবাদ-মুম্বই ম্যাচের আগেই নাইটদের প্লে অফ নিশ্চিত হয়ে যাবে। 

কেকেআরের প্লে অফে ওঠার অঙ্ক-

সম্ভাবনা ১-
 রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর যদি ২২ রানের বেশি কিংবা ১৮ বলের বেশি ব্যবধানে ম্যাচ হারে তাহলে তারা প্লে অফের রাস্তা থেকে ছিটকে যাবে। সেক্ষেত্রে সানরাইজার্সের ম্যাচের ফলাফলের ওপর নির্ভর করতে হবে না কলকাতাকে। 

সম্ভাবনা ২-
 দিল্লি ক্যাপিটালসের যদি  ২০ রানের বেশি কিংবা ১৫ বলের বেশি ব্যবধানে হারে, তবে তাদের নেট রান রেট কলকাতা নাইট রাইডার্সের থেকে কমে যাবে, যার জেরে সরাসরি প্লে অফে উঠে যাবে নাইটরা।

সম্ভাবনা ৩-
যদি এই ম্যাচ যদি ভেস্তে যায়, তাহলে এক এক পয়েন্ট পেয়ে দিল্লি ও ব্যাঙ্গালোর দুজনেই উঠে যাবে প্লে অফে, যদিও সেই সম্ভাবনা একেবারেই নেই বললেই চলে। তবুও যদি নয় তবে কেকেআরকে তাকিয়ে থাকতে হবে সানরাইজার্স বনাম মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ম্যাচের দিকে। 

সম্ভাবনা ৪-
ব্যাঙ্গালোর হারলো কিন্তু 'সম্ভাবনা ১' না মেনে কিংবা দিল্লি হারলো কিন্তু 'সম্ভাবনা ২' না মেনে, সেক্ষেত্রে কেকেআরকে অপেক্ষা করে থাকতে হবে মঙ্গলবারের হায়দরাবাদ বনাম মুম্বই ম্যাচের। সেখানে মুম্বই জিতলে চার নম্বর দল হিসেবে কেকেআর চলে যাবে প্লে অফে।