এবারও করোনার প্রকোপ থেকে রক্ষা পেল না এমএস ধোনির দল চেন্নাই সুপার কিংস। গতবারও আরব আমিরশাহিতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন দুই প্লেয়ার সহ মোট ১৩ জন সদস্য। প্লেয়ারদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন দীপক চাহার ও রুতুরাজ গায়কোয়ার। এবার করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই আইপিএল হচ্ছে দেশের মাটিতে। আর আইপিএল শুরপর আগেই করোনা থাবা বসিয়েছে প্রতিযগিতায়। রেহাইব পেল না সিএসকেও।

ইতিমধ্যে কেকেআরের নীতিশ রানা ও দিল্লি ক্যাপিটালসের অক্ষর প্যাটেল করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। নীতিশ সুস্থ হয়ে উঠলেও, অক্ষরের কথা জানা য়ায় শনিবার। এবার ধোনির দলে করোনার থাবা।  জানা গিয়েছে, চেন্নাইয়ের কনটেন্ট টিমের একজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এই খবর প্রকাশ পাওয়ার পরই আইপিএল জুড়ে তীব্র করোনা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এই খবর সামনে আসার পর থেকেই উদ্বেগ বেড়েছে সিএসকে প্লেয়ারদের মধ্যেও। যদিও আক্রান্ত ব্যক্তি কোনওভাবেই প্লেয়ারদের সংস্পর্শে যায়নি বলে জানা গিয়েছে। আক্রান্ত ব্যক্তিতে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

দেশের মাটিতে আইপিএল করা যে এবছর চ্যালেঞ্জের হতে চলেছে তা প্রথম থেকে বোঝা যায়নি। কারণ মাঝে করোনার প্রকোপ অনেকটা কমেছিল। কিন্তু বিগত কয়েক দিনে দেশ জুড়ে ঝড়ের গতিতে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ হাজারও ছুয়েছে। যা বিগত ৫ মাসে সর্বাধিক। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছ মৃতের সংখ্যাও। এই পরিস্থিতিতে আইপিএলে একের পর এক টিমে যেভাবে করোনা ছোবল বসাচ্ছে তাতে চিন্তায় ভাঁজ চওড়া হচ্ছে বিসিসিআই আধিকারিকদের কপালে।