আজ আইপিএলের মেগা ম্যাচ মুখোমুখি ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক ও সহ অধিনায়ক। বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা দ্বৈরথ দেখার অপেক্ষায় মুখিয়ে রয়েছে ক্রিকেট বিশ্ব। একদিকে প্রথম ম্যাচ হারের পর কেকেআরের বিরুদ্ধে জয়ে ফিরেছে রোহিত শর্মার দল। অপরদিকে জয় দিয়ে মরসুম শুরু করলেও, দ্বিতীয় ম্যাচে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের বিরুদ্ধে বড় ব্যবধানে হারতে হয়েছে বিরাট কোহলির দলকে। দুই দলই দুটি ম্যাচ খেলে একটি জিতেছে, একটি হেরেছে। তাই আজ দুবাই ইন্টারন্যাশানাল স্টেডিয়ামে একে অপরকে এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ দুই দল।  এদিন টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত শর্মার। 

দলগত শক্তির বিচারে দুই দলের রয়েছে একাধিক ম্যাচ উইনার। যেমন চার বারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলে রয়েছে রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডিককের মত তারকা ব্যাটসম্যান। কেকেআরের বিরুদ্ধে রানে ফিরেছেন হিটম্যান। যদিও ডিকরেব ফর্ম নিয়ে কিছুটা চিন্তায় রয়েছে মুম্বই শিবির। মিডিল অর্ডারে দলকে ভরসা দিচ্ছে সুর্যকুমার যাদব, ইষাণ কিষাণ । লোয়ার মিডিল অর্ডারে রয়েছে কায়রন পোলার্ড ও হার্দিক পান্ডিয়ার মত বিধ্বংসী ব্য়াটসম্যান। স্পিন বিভাগের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন ক্রুণাল পান্ডিয়া ও রাহুল চাহর জুটি। অপরদিকে পেস অ্যাটাকে রয়েছে বোল্ট, বুমরা, প্যাটিনসনের মত বিধ্বংসী ত্রয়ী। ফলে আরসিবিকে হালকা ভাবে না নিলেও, জয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী মুম্বই ইন্ডিয়ান্স শিবির।

অপরদিকে, শেষ ম্যাচে পঞ্জাবের বিরুদ্ধে ৯৭ রানে হেরে গিয়ে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর আত্মবিশ্বাসে কিছুটা ধাক্কা লেগেছে ঠিকই। কিন্তু ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া বিরাট কোহলির দল। দলে ব্য়াটিং লাইনআপে রয়েছে অ্যারন ফিঞ্চ, বিরাট কোহলি, এবি ডিভিলিয়ার্সের মত তারকা। তবে ফিঞ্চ ও এবিডি ফর্মে থাকার ইঙ্গিত দিলেও, বিরাট কোহলির ব্যাট এখনও কথা বলেনি। আজকের ম্যাচ রানে ফেরার জন্য মরিয়া হয়ে রয়েছে আরসিবি অধিনায়ক। বোলিং বিভাগও চাহল ও নবদীপ সাইনি ছাড়া কেউ এখনও তেমন একটা ভরসা জোগাতে পারেনি দলকে।সেই কারণেই এদিন দলে সুযোগ পেয়েছেন উদানা, জাম্পা ও গুরকিরাত সিং মান। তবে দুই দলের সামগ্রিক শক্তির বিচার করলে এই ম্যাচে কিছুটা এগিয়ে থেকেই শুরু করবে রোহিত শর্মার দল।