সিএসকের কাছে কেকেআরের হারে আরও জমে উঠেছে আইপিএল ২০২০-র প্লে অফের লড়াই। আজ আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হতে চলেছে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব ও রাজস্থান রয়্যালস। প্লে অফে যেতে হলে এই ম্যাচ থেকে জয় দরকার দুই দলেরই। বর্তমানে ১২ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের চতুর্থ স্থানে রয়েছে কে এল রাহুলের দল। অপরদিকে, ১২ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের সপ্তম স্থানে রয়েছে অধিনায়ক স্টিভ স্মিথের দল। ফলে আজ আবুধাবিতে আরও একটি হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচ দেখার অপেক্ষায় ক্রিকেট বিশ্ব।

প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বের সাতটি ম্যাচে মাত্র একটিতে জয় পেয়েছিল কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। কিন্তু দ্বিতীয় পর্বে দুরন্তভাবে কামব্যাক করে কোচ অনিল কুম্বলের দল। টানা পাঁচটি ম্যাচ জিতে আট থেকে ৪ নম্বরে উঠে এসেছে পঞ্জাব। দলের আত্মবিশ্বাস এই মুহূর্তে তুঙ্গে রয়েছে। এছাড়া প্রথম পর্বে  রাজস্থানের কাছে হারতে হয়েছিল পঞ্জাবকে। সেই হারের বদলা নিতেও মুখিয়ে রয়েছে কেএল রাহুলের দল। চোটের কারণে মায়াঙ্ক আগরওয়াল না থাকলেও, দুরন্ত ফর্মে ব্য়াট করছেন কেএল রাহুল, ক্রিস গেইল, নিকোলাস পুরান, মনদীপ সিংরা। ছন্দে ফিরছে ম্যাক্সওয়েল, দীপক হুডারা বোলিং লাইনআপেও মহম্মদ শামি, রবি বিষ্ণোই, মুরগান অশ্বিন, আর্শদীপ সিং, ক্রিস জর্ডানরা। ফলে আজ রাজস্থানের বিরুদ্ধে নামার আগে আত্মবিশ্বাসী কিংস ইলেভেন।

অপরদিকে, শেষ ম্যাচে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়ে প্রতিযোগিতায় কিছুটা ঘুরে দাঁড়িয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। একইসঙ্গে জিইয়ে রেখেছে তাদের প্লে অফের আশা। তবে আজ পঞ্জাবের বিরুদ্ধে তাদের ডু অর ডাই। প্লে অফে যেতে হলে আজ জিততেই হবে স্টিভ স্মিথের দলকে। মুম্বই বিরুদ্ধে অনবদ্য শতরান করে দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন বেন স্টোকস। শেষ ম্যাচে রান না পেলেও, ছন্দে রয়েছেন স্টিভ স্মিথ। মুম্বই বিরুদ্ধে ৫৪ রান করে রানে ফিরেছেন সঞ্জু স্যামসনও। এছাড়াও জস বাটলার, রিয়ান পরাগ, রাহুল তেওয়াটিয়ারাও ছন্দে রয়েছে। বোলিং লাইনআপ নিয়ে বর্তমানে কিছুটা চিন্তায় রয়েছে রাজস্থান টিম ম্যানেজমেন্ট জোফ্রা আর্চার ও শ্রেয়স গোপাল ছাড়া সেভাবে ধারাবাহিকভাবে ফর্মে নেই কেউ। তবে আজকের ম্যাচে পঞ্জাবকে হারিয়ে প্লে অফের রাস্তা আরও পরিস্কার করতে মরিয়া রয়্যালসরা।

পিচ ও ওয়েদার রিপোর্ট-
আবুধাবির উইকেট সম্পূর্ণ ব্যাটিং সহায়ক। এখানে উইকেটে বল আসে ব্যাটে, তাই ব্যাটসম্যানদের শট খেলতে সুবিধা হয়। বোলারদের পক্ষে এখানে কাজটা খুব একটা সুবিধার নয়। তবে মাঠ বড় হওয়ায় স্পিনাররা অল্প সুবিধা পেতে পারে। রান চেজ করে এই মাঠে জেরা রেকর্ড বেশি। ডিউয়ের কারণে ব্যাটসম্যানরা সুবিধা পায়। আজ আবুধাবির তাপমাত্রা থাকবে ২৯ ডিগ্রির আশেপাশে। বজায় থাকবে আদ্রতাজনিত অস্বস্তি। 

ম্যাচ প্রেডিকশন-
আবুদাবির উইকেট যেহেতু ব্যাটসম্যানদের স্বর্গরাজ্য। আর দুই দলেই রয়েছছে একাধিক তারকা ব্যাটসম্যান। তাই সেইভাবে ম্যাচের প্রেডিকশন করা সহজ নয়। তবে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন এই ম্যাচে যেই দল দ্বিতীয় ব্যাটিং করবে তাদের জয়ের সম্ভাবনা বেশি।