আজ আইপিএলে  শারজায় আরও একটি মেগা ফাইাট। মুখোমুখি হতে চলেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। দুই দলই  ৬ ম্যাচে ৪ টি জয় পেয়েছে। নেট রান রেটের বিচারে ৩ নম্বরে রয়েছে কেকেআর ও চার নম্বরে রয়েছে আরসিবি। আজকের ম্যাচ যেই দল জিতবে তারা মুম্বই ও দিল্লির সঙ্গে ৭ ম্যাচে ১০ পয়েন্টে পৌছে যাবে। তাই এই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয়ের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে দীনেশ কার্তিক ও বিরাট কোহলির দল। 

প্রথম ম্যাচে মুম্বইয়ের কাছে হারলেও, তারপর ছন্দে ফিরেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। শেষ ৫টি ম্যাচের মধ্যে ৪টিতে জয় পেয়েছে কেকেআর। মাঝে একটি ম্যাচ দিল্লির সঙ্গে লড়াই করে হারতে হয়েছে। শেষ ম্যাচে রানে ফিরেছে দলের অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। যা স্বস্তি দিয়েছে গোটা দলকে। এছাড়া কম-বেশি রানের মধ্যে রয়েছে রাহুল ত্রিপাঠী, শুভমান গিল, নীতিশ রানা, ইয়ন মর্গ্যানরা। শুধু কেবল মাত্র আন্দ্রে রাসালের অফ ফর্ম নিয়ে নিয়ে চিন্তায় রয়েছে গোটা দল। অপরদিকে বোলিং লাইনআপে ছন্দে রয়েছে প্যাট কামিন্স, প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা, বরুণ চক্রবর্তী, সুনীল নারিনরা। ফলে এই ম্যাচ জয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী কেকেআর শিবির।

অপরদিকে, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার আরসিবি দল অনেক ভাল পারফর্ম করছে। এখনও অধরা আইপিএল ট্রফি এবার জিততে মরিয়া রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স অধিনায়ক বিরাট কোহলি। প্রথম কয়েকটি ম্যাচে রান না পেলেও, শেষ কয়েকটি ম্যাচে রানে ফিরেছেন ভিকে। শেষ ম্যাচে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ৫২ বলে ৯০ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেছেন তিনি। একইসঙ্গে রানের মধ্যে রয়েছে ডিভিলিয়ার্স, পাড়িকল, শিবম দুবেরা। ফিঞ্চের ধারাবাহিকতা নিয়ে কিছুটা চিন্তা রয়েছে। পাশাপাশি বোলিং লাইনআপে ক্রিস মরিস এসে দলের শক্তি অনেকটা বাড়িয়েছে। গত ম্যাচেও ৩ উইকেট পেয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে লোয়ার অর্ডারে ব্যাটিং করতে সক্ষম তিনি। এছাড়া দুরন্ত ফর্মে রয়েছে ওয়াশিংটন সুন্দর, যুজবেন্দ্র চাহল, সাইনি, উদানারা। ফলে কেকেআরকে হারিয়ে লিগ টেবিলের উপরে উঠতে মরিয়া আরসিবিও।

পিচ ও ওয়েদার রিপোর্ট-
শারজার ছোট মাঠ ও ব্যাটিং সহায়ক পিচে হাইস্কোরিং ম্য়াচ হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। ফলে বোলারদের এই ম্য়াচে খুব একটা সুবিধা করার সম্ভাবনা  কম। তবে যেই দল প্রথম ব্যাটিং করবে তাদের জয়ের সম্ভাবনা খুব বেশি। শেষ ৫ ম্য়াচের মধ্যে ৪টি ম্যাচেই প্রথম ব্যাট করা দল জয় পেয়েছে। আজ আবুধাবির তাপমাত্রা থাকবে ৩৩ ডিগ্রির আশেপাশে। বজায় থাকবে আদ্রতাজনিত অস্বস্তি। 

ম্যাচ প্রেডিকশন-
দুই দলেই একাধিক ম্যাচ উইনার রয়েছে। আর শারজার ছোট মাঠে কোনও দলকে এগিয়ে বা পিছিয়ে রাখা খুব সমস্যার। তবে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন যেই দল আজ প্রথম ব্যাট করবে তাদের জয়ের সম্ভাবনা বেশি।