আজ আইপিএলে ডবল হেডার। দ্বিতীয় ম্যাচে দুবাই ইন্টারন্যাশানাল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি চেন্নাই সুপার কিংস ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। দুই দলই তাদের শেষ ম্য়াচ হেরেছে। তাই আজকের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জিততে মরিয়া আরসিবি ও সিএসকে। ব্যাঙ্গালোর বেশ কিছু ভাল ম্যাচ খেললেও, প্রথম ম্য়াচ বাদ দিলে এবছর আইপিএলে এখনও  ছন্দে নেই সিএসকে। তবে আজ এমএস ধোনি ও বিরাট কোহলি দ্বৈরথ দেখার অপেক্ষায় মুখিয়ে রয়েছে ক্রিকেট প্রেমিরা। 

বর্তমানে লিগ টেবিলে ৫ ম্যাচে ৩টি জয়ের সৌজন্যে ৬ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আরসিবি। শেষ ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটাললসের কাছে হারতে হয়েছে কোহলি ব্রিগেডকে। অন্যান্য বারের তুলনায় এবার অপেক্ষাকৃত ভাল জায়গায় থাকলেও, দবের ব্যাটসম্যান ও বোলারদের ধারাবাহিকতার অভাব ডোবাচ্ছে ব্যাঙ্গালোরকে। বিরাট কোহলি পরপর ২ ম্যাচ রান করায় স্বস্তি ফিরেছে দলে। বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেছেন ডিভিলিয়ার্সও। ফর্মে রয়েছে পাড়িকলও। কিন্তু এছাড়া অন্য়ান্য ব্যাটসম্যানরা ভুগছে ধারাবাহিকতার অভাবে। বোলিং লাইনআপেও চাহল ও ওয়াশিংটন সুন্দর ভরসা দিলেও, বাকিরা এখনও নিজেদের সেরাটা উজার করে দিতে পারেনি। তবে আজ সিএসকে-কে হারিয়ে লিগ টেবিলের উপরে উঠতে মরিয়া কোহিল এন্ড কোং।

অপরদিকে, ৬ ম্য়াচে ২টি ম্যাচ জয়ের সৌজন্যে ৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের ষষ্ঠস্থানে রয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস। শেষ ম্যাচে কেকেআরের বিরুদ্ধে হারলেও, একসময় জেতা ম্যাচ ছিল সিএসকের। কিন্তু মিডল অর্ডারের ব্যর্থতার জেরেই ম্যাচ হারতে হয়েছিল ধোনির দলকে। টুর্নামেন্টে ফাফ ডুপ্লেসির দুরন্ত যেমন ভরসা দিচ্ছে সিএসকে শিবিরকে, তেমনই স্বস্তি দিয়েছে ওয়াটসনের রানে ফেরা। কিন্তু রায়ডু, কেদার যাদবদের ধারাবাহিকতার অভাব চিন্তায় রেখেছে দলকে। নিজের সেরা ফর্মে নেই অধিনায়ক ধোনিও। যদিও সার্দুল ঠাকুর, স্যাম কুরান, ডোয়েইন ব্রাভো, করণ শর্মাদের বোলিং ভরসা দিচ্ছে তিন বারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন দলকে। তবে পরিস্থিতি যাই থাক প্রতিযোগিতার ওপরের দিকে উঠতে গেলে আজকের ম্যাচ জয় খুব দরকার সিএসকের। তা জানে গোটা দল। তাই আজ আরসিবির বিরুদ্ধে জয়ে বদ্ধপরিকর ধোনি ব্রিগেড।

পিচ ও ওয়েদার রিপোর্ট-
আজ দুবাইয়ের উইকেট পুরোপুরি ব্যাটিং সহায়ক হতে চলেছে। তবে বড় মাঠে কিছুটা সুবিধা পেতে পারেন স্পিনাররা। পিচের চরিত্র খুব একটা না বদলালেও, যেই দল প্রথমে ব্যাট করবে তাদের জেতার সম্ভাবনা বেশি বলেই মনে করা হচ্ছে। অপরদিকে দুবাইয়ের ওয়েদার আদ ৩৪ ডিগ্রির আশেপাশে থাকবে। বজায় থাকবে আদ্রতাজনিত অস্বস্তি। 

ম্যাচ প্রেডিকশন-
দুই দলেই একাধিক ম্য়াচ উইনার রয়েছে। তবে সাম্প্রতিক কালে ওঠা নামা করেছে দুই দলের ফর্ম। তবে তুল্যমূল্য বিচারে চেন্নাই সুপার কিংসের থেকে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর কিছুটা এগিয়ে থাকলেও, ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন এই ম্যাচে যেই দল আগে ব্যাট করেব তাদের জয়ের সম্ভাবনা বেশি।