টানা ৩ ম্যাচ জয়ের পর মাঝে দুটি ম্যাচে ধাক্কা। একটি হার ও একটি ড্র। কিছুটা ব্যাকফুটে তলে গিয়েছিল অ্য়ান্টোনিও লোপেজ হাবাসের এটিকে মোহনবাগান। তারপর বুধবার এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে ফের জয়ে ফিরেছে সবুজ-মেরুণ ব্রিগেড। হাবাসের ট্যাকটিকাল ফুটবলের কাছে কার্যত হার নমানে জুয়ান ফেরান্ডোর গোয়া। গোল করে ফের এটিকেএমবি-র ত্রাতার ভূমিকায় রয় কৃষ্ণা। গোয়া ম্যাচ জয়ের পর ফুরফুরে মেজাজে এটিকে মোহনবাগান শিবির। আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছে গোটা দল। সামনে বেঙ্গালুরু চ্যালেঞ্জ। তার আগে নিজেদের কথা জানালেন হাবাসের দুই তারকা অরিন্দম ভট্টাচার্য ও কার্ল ম্যাকহিউজ।

অরিন্দম ভট্টাচার্য-
রয় কৃষ্ণার গোলের পর শেষ মুহূর্তে গোয়ার একটি অনবদ্য শট বাঁচিয়ে মোহনবাগানের ৩ পয়েন্টি নিশ্চিৎ করেন এটিকে মোহনবাগানের গোলরক্ষক অরিন্দম ভট্টাচার্য। তিনি বলেন,'শেষ মুহূর্তে অনবদ্য সেভ করে দলকে বাঁচানোর জন্য এনেকেই আমাকে কৃতিত্ব দিচ্ছে। সেটা বেশ ভালো লাগছে। দলের গোল অক্ষত রেখে ড্রেসিং রুমে ফিরতে পেরে ভালই অনুভূতি হচ্ছে। আর সঠিক সময় ভালো সেভ করতে না পারলে চ্যাম্পিয়ন দল আমাকে দলে রাখবেই বা কেনও? সামনে বেঙ্গালুরু বিরুদ্ধে আমাদের ম্য়াচ। গতবারের মত সুনীল ছেত্রীদের ততটা শক্তিশালী মনে না হলেও, আমরা মোটেই হালকাবাবে নিচ্ছি না ম্যাচটা। তবে গোয়া ম্যাচ আমরা জেতার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী।'

কার্ল ম্যাকহিউজ-
এটিকে মোহনবাগান মাঝমাঠের অন্যতম ভরসা কার্ল ম্যাকহিউজ। কার্যত নেতৃত্ব দিচ্ছেন সবুজ-মেরুণ মাঝ মাঠকে। দুটি ম্যাচে ম্যাচের সেরাও হয়েছেন কার্ল ম্যাকহিউজ। গোয়া ম্য়াচ জয়ের ম্যাচ তিনি বলেছেন,'৬ ম্যাচের মধ্যে দুটি ম্য়াচে সেরা হয়েছি, এতে আমার আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। নিজের ফর্মে এখনও পর্যন্ত খুশি। চ্যাম্পিয়ন টিমের সঙ্গে খেললে এমনিতেই খেলার উন্নতি হয়। গোয়ার পর এবার আমাদের প্রতিপক্ষ বেঙ্গালুরু। আরও একটা কঠিন ম্যাচ। লিগ টেবিলে ভালো জায়গায় পৌছতে হলে এই ম্য়াচ আমাদের জিততেই হবে।' ফলে বেঙ্গালুরু ম্য়াচের আগে এটিকে মোহনবাগান দল কতটা আত্মবিশ্বাসী তা অরিন্দম, ম্যাকহিউজদের কথা থেকে স্পষ্ট।