টানা তিন ম্যাচ জিতে আইএসএলে স্বপ্নের শুরু করেছিল এটিকে মোহনবাগান। কিন্তু হঠাৎ যেন ছন্দ পতন। শেষ দুই ম্যাচে অধরা জয়। জামশেদপুরের বিরুদ্ধে ও হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ড্র। যারফলে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থানও হারাতে হয়েছে অ্যান্টোনিও লোপেজ হাবাসের দলকে। এবার সামনে এফসি গোয়া চ্য়ালেঞ্জ। রবিবার থেকে গোয়ার বিরুদ্ধে নামার আগে অনুশীলন শুরু করেছে সবুজ-মেরুণ শিবির। শেষ দুই ম্যাচের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে ফের জয়ের সরণিতে ফিরবে এটিকে মোহনবাগান। আশাবাদী হাবাস সহ অন্যান্য প্লেয়াররা।  জেনে নিন গোয়া ম্যাচের আগে কী ভাবছেন প্লেয়াররা।

মনবীর সিং-
এটিকে মোহনবাগানের নতুন তারকা বলেন,'হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে জীবনের অন্যতম সেরা গোল করেছিলাম। কিন্তু ম্য়াচটা জিততে না পারার আফশোসটা যাচ্ছে না। ডার্বির চেয়েও হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে গোল করে বেশি আনন্দ হয়েছিল। আমার জন্যই ওরা পেনাল্টি পাওয়ায় খারাপ লাগা রয়েছে, কিন্তু পরে অনেকেই বলছে ওটা পেনাল্টি ছিল না। তবে আমরা এখন গোয়া ম্যাচ নিয়ে ভাবছি। গোয়া ভালো দল। কিন্তু সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে আমরা ম্য়াচ জয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী।'

শুভাসিস বসু-
'হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে আমরা জিততে না পারলেও, যথেষ্ট ভালো ফুটবল খেলেছি। রয় কৃষ্ণা ও মনবীর গোলের মধ্যে থাকা আমাদের কাছে ভালো দিক। পেনাল্টি না পেলেও ওই ম্য়াচেও আমরা ৩ পয়েন্ট নিয়ে ফিরতে পারতাম। তবে গোয়া ম্যাচে আমাদের জয়ে ফেরাটা দরকার। সেই লক্ষ্যেই আমরা এগিয়ে চলেছি।'

কার্ল ম্যাকহিউজ-
মাঝমাঠের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার কার্ল ম্যাকহিউজ বলেন,'এটা ঠিক, ভাল শুরু করেও শেষ দুটো ম্যাচে আমরা প্রত্যাশিত ফল পাইনি। ভেঙে পড়ার কিছু দেখছিনা। লম্বা লিগ। ওঠানামা তো থাকবেই। শেষ দুটো ম্যাচের প্রভাব গোয়া ম্যাচে পড়বে না। আমরা ম্যাচ ধরে ধরে এগোতে চাইছি। বুধবারের ম্যাচে নতুন প্রতিপক্ষ। যাদের সঙ্গে এখন আমরা খেলিনি। শুধু গোয়া নয়, এবারের আইএসএলে সব দলই কঠিন প্রতিপক্ষ।'

প্রীতম কোটাল-
'এত বড় লিগে ওঠা নামা থাকবেই। শেষ দুটি ম্যাচে এক পয়েন্ট পেয়ে খুব একটা ক্ষতিও হয়ে যায়নি। গোয়া ম্য়াচে আমরা জয়ে ফেরার জন্যই মাঠে নামব। নিজেদের ঘর সামলে তারপর আক্রমণে যাব। তবে আমরা শুধু আমাদের নিয়ে ভাবছি নিজেদের খেলাটা খেলতে পারলেই আমি খেতে যাব।'