আইএসএলে টানা তিন ম্যাচ হারের আজ জামশেদপুর এফসির মুখোমুখি হয়েছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। প্রতিযোগিতার প্রথম জয়ের খোঁজে এই ম্য়াচকেই পাখির চোখ করেছে লাল-হলুদের ব্রিটিশ কোচ রবি ফাউলার। দলের সাফল্য নিয়ে আত্মবিশ্বাসের সুর এদিনও ম্যাচে আগে শোনা গিয়েছে লিভাপুল কিংবদন্তীর কন্ঠে। অপরদিকে এটিকে মোহনবাগানকে হারিয়ে আত্মবিশ্বাসে ভরপুর হয়ে ফাউলারের দলের বিরুদ্ধে নেমেছে ওয়েন কোয়েলের জামশেদরপুর এফসি। তবে প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় গোলশূন্যভাবে।

এদিন ম্য়াচের শুরু থেকেই টানটান উত্তেজনায় শুরু হয় খেলা। রক্ষণ সামলে আক্রমণে যাওয়ার পরিকল্পনা নেয় রবি ফাউলার ও ওয়েন কোয়েলের দল। কিন্তু ধীরে ধীরে খেলার রাশ নিজেদের দখলে নিয়ে আসে জামশেদপুর। লাল-হলুদ রক্ষণে ও একের পর এক আক্রমণ আছড়ে পড়তে থাকে। যার জেরে ম্য়াচের ২৪ মিনিটে রেড কার্ডও দেখতে হয় রবি ফাউলারের দলের প্লেয়ারকে। লাল কার্ড দেখে মাঠের বাইরে চলে যান লিন্ডো। ১০ জনের ইস্টবেঙ্গলকে পেয়ে আক্রমণের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয় ভালসকিসরা। তবে কোনও মতে রক্ষণ সামলে প্রথমার্ধের খেলা গোল শূন্য সমতায় রাখে এসসি ইস্টবেঙ্গল।

প্রথমার্ধের পরিসংখ্যান থেকেই স্পষ্ট যে ৪৫ মিনিটে একাধিপত্ব ছিল জামশেদপুর এফসির। বল পজশনে ৬৭ শতাংশ ছিল ওয়েল কোয়েলের দলে। সেখানে মাত্র ৩৩ শতাংশ বল পজিশন লাল-হলুদের দখলে। শট নেওযার দিক থেকেও অনেকটা এগিয়ে জামশেদপুর। মোট ৯টি শট নিয়েছে অ্যালেক্স, মনরয়, ভালসকিসরা। ১০ জনের ইস্টেবেঙ্গল দ্বিতীয়ার্ধে কোন রণনীতি নিয়ে খেলে এখন সেটাই দেখার। ১০ জনে খেলেও অঘটন দেখার অপেক্ষায় লাল-হলুদ সমর্থকরা। গোলের অপেক্ষায় ফুটবল প্রেমিরা।