শেষ দুই ম্যাচে এসেছে মাত্র এক পয়েন্ট।  মুম্বই সিটি এফসির বিরুদ্ধে হারের পর এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে জয় অধরা থেকে গিয়েছে এটিকে মোহনবাগানের। এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে অ্যান্টোনিও লোপেজ হাবাসের দলকে। এই পরিস্থিতিতে আজ চেন্নাইয়িন এফসি-র বিরুদ্ধে মাঠে নামছে সবুজ-মেরুণ ব্রিগেড। এই ম্যাচ থেকেই জয়ে ফেরার টার্গেট করেছে হাবাসের দল। অপরদিকে, ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে ড্র করলেও, বাগানকে হারিয়ে লিগ টেবিলের উপরে উঠতে মরিয়া চেন্নাইয়ের দলও।

জয়ে ফিরতে মরিয়া সবুজ-মেরুণ ব্রিগেড-
বর্তমানে লিগ টেবিলের দুই নম্বরে রয়েছে এটিকে মোহনবাগান।  ১১ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট দলের। শেষ দুই ম্যাচে জয় না আসলেও, তা নিয়ে খুব একটা চিন্তিত নন বাগান কোচ। তার দলের উপর পূর্ণ ভরসা রয়েছে লোপেজ হাবাসের। তিনি জানিয়েছেন,এই ধরনের টুর্নামেন্টে অনেক ভাল,'আবার অনেক খারাপ মুহূর্ত থাকে। আমরা মুম্বই আর গোয়ার বিরুদ্ধে খেলেছি, যারা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দাবিদার। তবে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে আমরা আত্মবিশ্বাসী।' তবে বেশ কয়েকটি ম্যাচ ধরে গোলের খরায় ভুগছে বাগান শিবির। দলের আক্রমণ বিভাগকে আরও শক্তিশালী হতে হবে বলে মেনে নিয়েছেন হাবাস। তবে ডেভিড উইলিয়ামস, রয় কৃষ্ণা, এদু গার্সিয়াদের উপর পূর্ণ ভরসা রয়েছে বাগান হেড স্যারের। আক্রমণ ও রক্ষণের ভারসাম্যের মধ্য দিয়েই চেন্নাই বধের ছক কষছেন সবুজ-মেরুণের স্প্যানিশ কোচ। 

লড়াই দিতে প্রস্তুত চেন্নাই-
অপরদিকে, ওড়িশার বিরুদ্ধে জয় পেলেও, এসি ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে ড্র করেছে চেন্নাইয়িন এফসি। ১২ ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে হাঙ্গেরিয়ান কোচ কসাবা লাজলোর দল। মোহনবাগানকে হারিয়ে লিগ টেবিলে উপরে উঠে আসতে মরিয়া চেন্নাই। ফর্মে রয়েছে অনিরুদ্ধ থাপা, ছাঙতে, রহিম আলিরা। তবে শক্তিশালী এটিকে মোহনবাগানকে যথেষ্ট সমীহ করছে চেন্নাই কোচ। তাই প্রথমেই আক্রমণে না গিয়ে, রক্ষণ সামলে কাউন্টার অ্যাটাকে যাওয়াই লক্ষ্য কসাবা লাজলোর। তবে এই ম্যাচ থেকে তিন পয়েন্ট পেতে মরিয়া আইএসএলের অন্যতম ধারাবাহিক দল।

ম্যাচ প্রেডিকশন-
এই মরসুমে ধারাবাহিকতার বিচারে চেন্নাইয়ের থেকে অনেক বেশি ভালো জায়গায় রয়েছে এটিকে মোহনবাগান। সেই জায়গায় ফর্ম ওঠা নামা করেছে চেন্নাইয়ের। আক্রমণ ও মাঝমা থেকে রক্ষণ সব বিভাগেই চেন্নাইয়ের থেকে কিছুটা এগিয়ে হাবাসের দল। তাই আজকের ম্যাচে এটিকে মোহনবাগানকেই কিছুটা এগিয়ে রাখছে ফুটবল বিশেষজ্ঞরা।