ডুয়ার্সের বন্ধ চা বাগানে ঢুকে পড়ল হাতি।  বাগানে কাজ করতে গিয়ে বেঘোরে প্রাণ গেল এক মহিলা। গুরুতর আহত হয়েছেন আরও একজন। ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে জলপাইগুড়ির বানারহাটে, রেডব্যাঙ্ক চা বাগানে।  নিহতের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে বনদপ্তর।

জলপাইগুড়ির রেডব্যাঙ্ক চা বাগানটি দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ। বাগানে ইতিউতি জন্মেছেন ঝোপ-ঝাড়। ফলে হাতি যদি বাগানে ঢুকেও পড়ে, তাহলে বাইরে তা বোঝার উপায় নেই। তার জেরেই কি ঘটল বিপত্তি? তেমনটাই মনে করছেন বনদপ্তরের আধিকারিকরা। 

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে অগাছা সাফাই করতেই রেডব্যাঙ্ক চা বাগানে ঢুকেছিলেন বিবিয়া ওঁরাও ও জাহিদা খাতুন নামে দু'জন মহিলা। ঘাস কাটার সময়ে আচমকাই হাতির সামনে পড়ে যান তাঁরা। শুড় দিয়ে তুলে বিবিয়া ও জাহিদা আছাড় মেরে মাটিতে ফেলে দেয় হাতিটি। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই দুইজনকে উদ্ধার করে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় বানারহাট হাসপাতালে। পরে জাহিদা মাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ও বিবিয়াকে বীরপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়ে দেব চিকিৎসকরা। কিন্তু মালবাজারে নিয়ে যাওয়ার পথে জাহিদা মারা যান বলে জানা গিয়েছে। বিবিয়ার শারীরিক অবস্থায় অত্যন্ত সংকটজনক। 

এদিকে খবর পেয়ে হাসপাতালে আহতকে দেখতে যান বন দপ্তরের সাম্মানিক ওয়াইল্ড লাইফ ওয়ার্ডেন সীমা চৌধূরী। নিহতদের পরিবারকে তো বটেই, আহতের চিকিৎসার খরচ বনদপ্তরই বহন করবে বলে জানিয়েছে তিনি। ঘটনায় আতঙ্কিত চা বাগান লাগোয়া এলাকায় বাসিন্দারা।