শুকনো খড়ের গাদার উপরে গাড়ি দাঁড় করিয়ে মোরগের লড়াই দেখছিলেন চালক এবং আরোহীরা। আচমকাই খড়ের গাদা থেকে আগুন লেগে ভষ্মীভূত হয়ে গেল গোটা গাড়িটি। মঙ্গলবার দুপুরে এমনই ঘটনার সাক্ষী থাকল ঝাড়গ্রাম জেলার সাঁকরাইলে। দমকল আসার আগেই গাড়িটি সম্পূর্ণ ভষ্মীভূত হয়ে যায়। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মকর সংক্রান্তিতে সাঁকরাইল ব্লকের লাউদহ এলাকায় মোরগের লড়াইয়ের আয়োজন করা হয়। সেই লড়াই দেখতে দূর দূরান্ত থেকে ভিড় জমান অনেকেই। মোরগের লড়াই দেখতেই একটি মারুতি গাড়ি চড়ে এসেছিলেন ছ' জন যুবক। মাঠের পাশে খড়ের গাদার উপর গাড়িটি দাঁড় করান চালক। এর পর আরোহীদের সঙ্গে তিনিও গাড়ে থেকে নেমে মোরগের লড়াই দেখতে শুরু করেন।

কিন্তু দীর্ঘ পথ পেরিয়ে আসায় গাড়িটির ইঞ্জিন এবং সাইলেন্সর গরম হয়েছিল। সম্ভবত সেই স্পর্শেই খড়ে আগুন লেগে যায়। তা ছড়িয়ে পড়ে গাড়ির তেলের ট্যাঙ্কারে। মুহূর্তে গোটা গাড়িটি দাউ দাউ করে জ্বলতে শুুরু করে। চালক এবং অন্যান্যরা যতক্ষণে বিষয়টি খেয়াল করেন, তখন আর কিছু করার ছিল না। 

যে মাঠে গাড়িটি দাঁড় করানো হয়েছিল, তার আশেপাশে কোনও পুকুর বা জলের উৎস ছিল না। ফলে কার্যত চোখের সামনে গাড়িটি জ্বলতে দেখা ছাড়া উপস্থিত কারওরই কিছু করার ছিল না। দমকল পৌঁছনোর আগেই আগুনে ভষ্মীভূত হয় গাড়িটি। চালকের অসতর্কতাতেই এত বড় দুর্ঘটনা বলে সন্দেহ স্থানীয় বাসিন্দা এবং পুলিশের।