Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Abhishek Banerjee in Tripura: হার্মাদ-উন্মাদদের উল্লাস মঞ্চে পরিণত হয়েছে ত্রিপুরা, বিজেপিকে নিশানা অভিষেকের

চলবে নাদুয়ারে গুন্ডা মডেল, ত্রিপুরায় চাই দুয়ারে সরকার”, আগরতলায় নেমেই বিজেপিকে এই ভাষাতেই কটাক্ষ শানাতে দেখা গেল তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায়কে।

Abhishek Banerjee vistis Tripura attacks BJP in Agartala
Author
Tripura, First Published Jan 2, 2022, 2:15 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

পূর্ব ঘোষিত সফর সূচি মেনেই রবিবার সকালে ত্রিপুরায় পৌঁছে যান সর্বভারতীয় তৃণমূলের-কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায়(Abhishek Banerjee, General Secretary of the All India Trinamool Congress)।  আগরতলা বিমানবন্দরে(Agartala Airport) পৌঁছাতেই অভিষেককে স্বাগত জানাতে সেখানে হাজির হয়ে যান ত্রিপুরা রাজ্য কমিটির(Tripura State Committee) শীর্ষ স্তরের তৃণমূল নেতারা। রাজীব বন্দোপাধ্যায়কে(Rajiv Bandopadhyay) সঙ্গে নিয়ে চতুর্দশ দেবতা মন্দিরে পুজো দেন তিনি। সেই সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন তৃণমূল নেত্রী সুস্মিতা দেবও(Trinamool leader Sushmita Dev)। এদিকে নতুন বছরে ত্রিপুরার মাটিতে নেবেই গেরুয়া শিবিরকে এক হাত নেন অভিষেক। তাঁর দাবি হার্মাদ এবং উন্মাদদের উল্লাস মঞ্চে পরিণত হয়েছে ত্রিপুরা। যদিও পাল্টা আক্রমণের রাস্তায় হেঁটেছে বিজেপিও(BJP)।

এদিন আগরতলায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অভিষেককে বলতে শোনা যায়, ঈশ্বরের আশীর্বাদ নিতেই চতুর্দশ দেবতা মন্দিরে এসেছি। এই মন্দিরে আসতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। ঈশ্বরের কাছে রাজ্যের সমস্ত মানুষের মঙ্গল কামনায় প্রার্থনাও করেছি। আমরা ত্রিপুরা মাটি থেকেই আগামী দিন বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করব। ত্রিপুরাতে তৃণমূল এক ইঞ্চি জমি ছাড়বে না গেরুয়া শিবিরকে। নির্বাচনের ফলাফলে দেখা গিয়েছে, অবাধ সন্ত্রাসের মধ্যেও পুরভোটে ভাল ফল করেছে তৃণমূল। প্রার্থীরা নিজেদের ভোটাধিকারই প্রয়োগ করতে পারেনি। তারপরেও গোটা রাজ্যে আমরা ২৪ শতাংশ ভোট পেয়েছি। আগরতলাতে তৃণমূল ২০ শতাংশ ভোট পেয়েছে। এখনও বিধানসভা নির্বাচনের এক বছর বাকি। এর মধ্যে অনেক কিছুই হতে পারে।”

আরও পড়ুন-অন্তঃসত্ত্বার পেটে লাথি তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধানের, ব্যাপক উত্তেজনা খানাকুলে

এখানেই না থেমে বিজেপির বিরুদ্ধে কটাক্ষবান শানিয়ে তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ডের আরও দাবি, “দুয়ারে গুন্ডা মডেল চলবে না, ত্রিপুরায় চাই দুয়ারে সরকার”। যদিও তাঁর তোপের মুখে চুপ করে থাকেনি গেরুয়া শিবিরও। পাল্টা আক্রমণের রাস্তা হেঁটেছেন ত্রিপুরার বিজেপি নেতা নবেন্দু ভট্টাচার্য। তাঁর দাবি, “অভিষেকের মানসিক স্থিতি ঠিক নেই। এই কথা গুলি ওর জন্যই প্রযোজ্য। এসব বলে কোনও লাভ নেই। ত্রিপুরার মানুষ সব জানে। বাংলার অবস্থা সবাই দেখছে।” অন্যদিকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ শানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর দাবি, “ত্রিপুরায় তৃণমূলের কোনও অস্তিত্ব নেই। ত্রিপুরার মানুষ বুঝিয়ে দিয়েছে এরকম পার্টি ত্রিপুরায় চলবে না। গোয়া ত্রিপুরা ছেড়ে এখন বাংলায় মন দিন তৃণমূল নেতারা।” অন্যদিকে এদিন চতুর্দশ মন্দির থেকে বরমুড়া সফরের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে যান অভিষেক। সেখানে আদিবাসীদের তরফে তার জন্য বিশেষ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এরপর তেলিয়ামুড়াতে পুরভোটের সময় বিজেপির হাতে আক্রান্ত তৃণমূল কর্মী অনির্বান সরকারের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজে সারবেন তিনি। মহিলা আক্রান্ত কর্মীদের বাড়িতেও যাবেন বলে জানা যাচ্ছে। এরপরই সন্ধ্যেবেলা দলের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে যোগ দেবেন তিনি।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios