Asianet News Bangla

মোদীর ইচ্ছায় 'বাগড়া মমতার', টাকা থেকে বঞ্চিত ১০ লক্ষ কৃষক

  • কৃষকদের প্রাপ্য টাকা থেকে বঞ্চিত করছেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়
  • এমনই অভিযোগ করলেন কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর
  •  রাজ্য়ের ১০ লক্ষ কৃষক প্রধানমন্ত্রীর কৃষক সুবিধার জন্য় নথিভুক্ত হয়েছে
  • তাদের  টাকা দিতে বাঁধা দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা
Agriculture minister slams Mamata Banerjee on farmers benefits
Author
Kolkata, First Published Feb 25, 2020, 12:51 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp


কৃষকদের প্রাপ্য টাকা থেকে বঞ্চিত করছেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। এমনই অভিযোগ করলেন কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর। মন্ত্রীর অভিযোগ, রাজ্য়ের ১০ লক্ষ কৃষক  প্রধানমন্ত্রীর কৃষক সুবিধার জন্য় নথিভুক্ত হলেও তাদের  টাকা দিতে বাঁধা দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। দুবার এ বিষয়ে চিঠি পাঠালেও কোনও উত্তর দেয়নি  রাজ্য় সরকার।

মেয়াদ ফুরোচ্ছে বাংলার ৫ সাংসদের, ২৬ মার্চ রাজ্যসভার ভোট

রাজ্য় বাজেটে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ এনেছিলেন মুখ্য়মন্ত্রী। কদিন আগেও মোদীর বিরুদ্ধে এ নিয়ে সুর চড়িয়েছিলেন মমতা। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল ভিন্ন চিত্র। এবার মমতার বিরুদ্ধেই রাজ্য়ের কৃষকদের টাকা আটকানোর অভিযোগ আনলেন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী। নরেন্দ্র  সিং তোমরের অভিযোগ,প্রধানমন্ত্রীর কিষাণ সম্মান নিধি-র মাধ্যমে কৃষকদের বছরে ৬ হাজার  টাকা করে দেওয়া হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গের ৭০ লক্ষ কৃষকের মধ্য়ে ১০ লক্ষ এই প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করেছেন। কিন্তু রাজ্য় সরকার অনুমোদন না করায় এই টাকা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন কৃষকরা।

দিনভর ভিজবে কলকাতা, আগাম সতর্ক করল হাওয়া অফিস

তোমড়ের দাবি, দু বার রাজ্য়ের মুখ্যমন্ত্রীকে এই বিষয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন  তিনি। কিন্তু বার বার  চিঠি পাঠিয়েও কোনও উত্তর  আসেনি। ফলে ৪ হাজার কোটি  টাকা  থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন রাজ্য়ের কৃষককূল। যা রাজ্য়ের অর্থনীতিকেও চাঙ্গা করতে  কাজে লাগত। কেন্দ্রের এই যোজনা বলছে,গত বছর অ্যাপের মাধ্য়মে এই কৃষক পোর্টালের উদ্বোধন করা হয়। যাতে দেশের ৭৭ লক্ষ কৃষক টাকার জন্য় আবেদন করেছেন। ইতিমধ্য়েই সেল্ফ হেল্প পোর্টালের  মাধ্য়মে নিজেদের নাম নথিভুক্ত  করেছেন তাঁরা। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে এসে প্রধানমন্ত্রী এই কৃষক যোজনার গাড়ি  থমকে যাচ্ছে। 

এবার নোংরা জল শোধন করেই রাস্তা ও গাড়ি ধোয়া, পুনর্ব্যবহারের পরিকল্পনায় এনকেডিএ

দেশের সাম্প্রতিক ইতিহাস বলছে, ইতিমধ্য়েই রাজ্য়ে প্রধানমন্ত্রী আয়ুষ্মান যোজনা  লাগু করতে দেননি মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। বিজেপির  অভিযোগ, জোর করে এই প্রকল্প রাজ্য়ে ঢুকতে না  দিয়ে গরিব মানুষের ক্ষতি  করছেন মুখ্যমন্ত্রী। আয়ুষ্মান ভারত রাজ্য়ে ঢুকলে চিকিৎসা বাবদ বছরে বড় সুবিধা পেতেন নিম্নবিত্ত মানুষজন।   

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios