এবার নোংরা জল শোধন করেই পুনর্ব্যবহারের পরিকল্পনা নিয়েছে  এনকেডিএ অর্থাৎ নিউ টাউন কলকাতা উন্নয়ন পর্ষদ। রাস্তার ধারে থাকা পানীয় জলের কল হোক বা শৌচালয়ের কল। রোজ সেই সব উৎস থেকে বের হওয়া বিপুল পরিমাণ জল ব্যবহার করা হয় বাসন, পোশাক, গাড়ি ধোয়ার মতো কাজে। ব্যবহৃত ওই জল এ বার শোধন করে পুনর্ব্যবহারের পরিকল্পনা নিয়েছে নিউ টাউন কলকাতা উন্নয়ন পর্ষদ বা এনকেডিএ। সেই জন্য বসানো হবে একটি উন্নত প্রযুক্তির প্লান্টও।

আরও পড়ুন, বউবাজারে মেট্রোর কাজে ভোগান্তি বাসিন্দাদের, বাড়ি ছাড়তে হল ডায়ালিসিস রোগীকেও

এনকেডিএ-র এক কর্তা মঙ্গলবার বলেন, 'জলের অপচয় রুখতেই এই পদক্ষেপ। তবে ব্যবহৃত জল শোধন করে পানীয় জল হিসেবে ব্যবহার করা হবে না। মূলত সুলভ শৌচালয়, রাস্তাঘাট সাফাই করার ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা হবে ওই জল। গাছের পরিচর্যাতেও ওই জল ব্যবহার করা হবে।' ইতিমধ্যেই বহু দেশে জলের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। সে কথা মাথায় রেখে আগামী দিনের জন্য এই পদক্ষেপ খুবই কার্যকর ভূমিকা নেবে বলে এনকেডিএ-র কর্তাদের দাবি। 

আরও পড়ুন, মেডিক্যাল কলেজে দীর্ঘ লড়াই পর বোমায় জখম শিশুর মৃত্যু, গ্রেফতার ১


এনকেডিএ-র এক কর্তা বলছেন, 'বেঙ্গালুরুতে জল অপচয় বন্ধ করার ওই প্রকল্পের কথা আমরা মাস দুয়েক আগেই শুনেছিলাম। এর পর আমরা  গিয়ে তা দেখেও এসেছি। একই ধাঁচেই নিউ টাউনের মেলা প্রাঙ্গণে পাইলট প্রোজেক্ট হিসেবে একটি প্লান্ট তৈরি করা হবে।' সরকারি হিসেব অনুযায়ী, এখন রোজ গড়ে ৯২ লক্ষ গ্যালন জল লাগে নিউ টাউনে। রোজ নষ্ট হওয়া জলের পরিমাণ প্রায় ৪২ মিলিয়ন গ্যালন। কাজেই ওই ব্যবহৃত জল ফের ব্যবহারের উপযোগী করে তোলা গেলে রোজকার জলের চাহিদা অনেকটাই কমবে। 

আরও পড়ুন, সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ শহরে, যে কোনও মুহুর্তে ঝেঁপে আসতে পারে বৃষ্টি