সরকারি  বাস পরিষেবা শুরু করার কথা আগেই ঘোষণা হয়েছিল। এবার সরকারির সঙ্গে রাজ্য়ে বেসরকারি বাসগুলিও রাস্তায় নামার ছাড়পত্র পেল। আগামী সোমবার থেকে রাজ্য়ের গ্রিন জোনে পাওয়া যাবে এই পরিষেবা। এমনই জানিয়েছেন পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। 

বাস পরিষেবা শুরুর আগেই ভাড়া বাড়ানো নিয়ে দ্বন্দ্ব শুরু হয় বাস মালিকদের মধ্যে। বাসভাড়া না বাড়িয়ে রাস্তায় বাস চালানো তাদের পক্ষে কঠিন হবে বলে জানান বেসরকারি বাসমালিক সংগঠনগুল। তাই রাস্তায় বাস বেরোলেও তার ভাড়া কী হবে তা নিয়ে রাজ্য়বাসীর মনে সন্দেহ ছিল। অবশেষে সেই সন্দেহ দূর করলেন পরিবহণ মন্ত্রী। এদিন তিনি বলেন, বেসরকারি বাসে কোনও বাড়তি ভাড়া অনুমোদন করবে না রাজ্য সরকার।

এই বলেই অবশ্য থেমে থাকেননি  শুভেন্দু অধিকারী। তিনি  বলেন,বেসরকারি বাসের ভাড়া নিয়ে আগেই বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছিল। ভাড়ার বিষয়ে মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি থাকা অত্যন্ত জরুরি। সোমবার থেকে সকাল  সাতটা থেকে সন্ধ্য়ে সাতটা পর্যন্ত চালু থাকবে এই পরিষেবা। গ্রিন জোনে প্রতি আধ ঘণ্টা পর পর চলবে এই পরিষেবা।  স্বাস্থ্যবিধি মেনে বেসরকারি বাসও চলবে সরকারি  বাসের সঙ্গে।

যদিও মন্ত্রী জানিয়ে দেন, কুড়ি জনের বেশি যাত্রী বাসে উঠতে পারবে না। যাত্রীদের মাস্ক পরা ছাড়াও নিজেদের স্যানিটাইজ করতে হবে। সম্প্রতি কলকাতায় ১৫টি রুটে বাস চলাচল শুরু হয়েছে। আগামী দিনে সবকিছুর ওপর খেয়াল রেখে রাজ্য়ে বাস পরিষেবা বাড়ানো হতে পারে বলে মন্তব্য় করেন পরিবহণ মন্ত্রী। এ ছাড়াও সোমবার থেকে এমার্জেন্সি সার্ভিস এর জন্য হাজার ওলা এবং উবার রাস্তায় নামছে। ট্রাম ও ফেরি পরিষেবাও চালু করা হবে বলে জানান শুভেন্দু অধিকারী।