আজ শনিবার ইতিমধ্য়েই দ্বিতীয়বারের জন্যে বাজেট পেশ শুরু করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। আর সেখানে ঘোষণা করলেন, আগামী চার বছরের মধ্য়ে দেশের মধ্য়ে  ১০০ টি নতুন বিমান বন্দর তৈরী করা হবে। এজন্য়  পরিবহনের ক্ষেত্রে বড় পরিমানে অর্থ বরাদ্দ হয়েছে। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানিয়েছেন, পরিবহন পরিকাঠামোয় ১.৭ লক্ষ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। তারই সঙ্গে ২০২৩ সালের মধ্যে সম্পন্ন হবে দিল্লি-মুম্বই হাইওয়ের কাজ। এর ফলে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর  ঘোষণা, ২০৩০ সালের মধ্যে জনসংখ্যার নিরিখে বিশ্বের বৃহত্তম কর্মক্ষেত্র তৈরি হবে ভারতে।

 

এদিন দূষণ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী ৷ বড় শহরগুলিতে দূষণমুক্ত হওয়ার জন্য ৪৪০০ কোটি টাকার খরচের প্রস্তাব  অর্থমন্ত্রীর ৷ আগামী তিন বছরে সবার জন্য স্মার্ট প্রিপেড মিটার ৷ এর পাশাপাশি ধন লক্ষ্ণী যোজনার ঘোষণা ৷ পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়নে ১.২৩ লক্ষ কোটি ৷ ২৮ হাজার ৪০০ কোটির বিদেশী বিনিয়োগ হয়েছে ৷ এছাড়াও  স্বচ্ছ ভারত প্রকল্পে ১২ হাজার ৩০০ কোটি ৷ জল জীবন প্রকল্পে ৩.৬ লক্ষ কোটি বরাদ্দ করা হয়েছে ৷ 

 এছাড়াও দেশের চারটি মিউজিয়ামের সংস্কারের জন্য বিশেষ বরাদ্দ ৷ সেই তালিকায় রয়েছে কলকাতার ভারতীয় মিউজিয়ামও ৷ ইন্ডিয়াম মিউজিয়ামেরও সংস্কার করা হবে ৷ ফলে কলকাতার ভারতীয় যাদুঘরে আসতে পারে নয়া চমক ৷ সংস্কারের তালিকায় রয়েছে কলকাতা মিন্টও ৷হরিয়ানা, তামিলনাড়ু, অসম, গুজরাত ও উত্তরপ্রদেশে প্রত্নতাত্ত্বিক সংগ্রহশালা গড়ে তোলার ঘোষণা অর্থমন্ত্রীর। ঝাড়খণ্ডে আদিবাসী মিউজিয়ম গড়ে তোলা হবে।