Asianet News Bangla

গৃহবধূকে অপহরণের চেষ্টা, বাধা দেওয়ায় শ্বশুরকে টেনে হিঁচড়ে মারল অ্যাম্বুল্যান্স

  • ট্যাংরার গোবিন্দ খটিক রোডের ঘটনা
  • গহবধূকে জোর করে অ্যাম্বুল্যান্স-এ তোলার চেষ্টা
  • পুত্রবধূকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ হারালেন শ্বশুরমশাই
  • ঘটনায় রাতের কলকাতায় নারী নিরাপত্তা নিয়ে ফের বড়সড় প্রশ্ন
     
Ambulance drags away an old man in Tangra as he tried to save dignity of his daughter in law
Author
Kolkata, First Published Feb 5, 2020, 10:38 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

রাতের কলকাতায় ফের নারী নিরাপত্তা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন। আত্মীয়দের সামনেই জোর করে এক গৃহবধূকে চলন্ত অ্যাম্বুল্যান্স-এ  তুলে নেওয়ার চেষ্টা। বাধা দিতে গিয়ে প্রাণ হারালেন গৃহবধূর শ্বশুর। মঙ্গলবার রাতে এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনার সাক্ষী থাকল ট্যাংরা। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ট্যাংরার গোবিন্দ খটিক রোড-এ। স্থানীয়দের দাবি, পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে গোবিন্দ খটিক রোড ধরে বিয়ে বাড়ি থেকে ফিরছিলেন ওই গৃহবধূ। তখনই তাঁকে অনুসরণ করে এগিয়ে আসে একটি অ্যাম্বুল্যান্স। অভিযোগ, বেশ কিছুক্ষণ ওই গৃহবধূকে অনুসরণ করার পর এক সময়ে অ্যাম্বুল্যান্স-এ থাকা এক ব্যক্তি গৃহবধূর হাত ধরে টেনে তাঁকে অ্যাম্বুল্যান্স-এ তুলে নেওয়ার চেষ্টা করে। 

সঙ্গে সঙ্গে ঘটনার প্রতিবাদ করে এগিযে যান গৃহবধূর শ্বশুর এবং অন্য এক আত্মীয়। অ্যাম্বুল্যান্সটিকে আটকানোর চেষ্টা করেন তাঁরা। আশপাশে ভিড়ও জমতে থাকে। অভিযোগ, বিপদ বুঝে অ্যাম্বুল্যান্স নিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন চালক। বাধা দিতে গেলে গৃহবধূর শ্বশুরমশাইকে টেনে হিঁচড়ে প্রায় একশো মিটার নিয়ে যায় ওই অ্যাম্বুল্যান্স। 

গুরুতর আহত অবস্থায় ওই প্রৌঢ়কে উদ্ধার করে স্থানীয়রা হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ট্যাংরা থানার পুলিশ প্রথমে বিষয়টিকে নিছক পথ দুর্ঘটনা বলেই খবর পেয়েছিল। কিন্তু তদন্তে নেমে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে। অভিযুক্ত অ্যাম্বুল্যন্সটিকে চিহ্নিত করার চেষ্টা করছে পুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios